বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > অশুভ শক্তি দূর করতে ১০৮ কেজি লঙ্কা গুঁড়োয় স্নান করলেন পুরোহিত
ছবি : সংগৃহীত।
ছবি : সংগৃহীত।

অশুভ শক্তি দূর করতে ১০৮ কেজি লঙ্কা গুঁড়োয় স্নান করলেন পুরোহিত

'অশুভ শক্তি' দূর করতে দিব্যি লঙ্কা গুঁড়ো নিয়ে সাবানের মতো গায়ে মাখলেন তিনি। তবে একটু আধটু নয়, পুরো ১০৮ কেজি!

রান্নার সময়ে লঙ্কায় হাত দেওয়ার পর চোখে বা মুখে হাত দিলেই অবস্থা খারাপ হয়ে যায়। আর সেই লঙ্কায় যদি চান করা হয়? ভাবাই যায় না। তবে এই অভাবনীয় কাণ্ডই করলেন এক পুরোহিত। 'অশুভ শক্তি' দূর করতে দিব্যি লঙ্কা গুঁড়ো নিয়ে সাবানের মতো গায়ে মাখলেন তিনি। তবে একটু-আধটু নয়, পুরো ১০৮ কেজি! ঘটনাটি তামিলনাড়ুর ধরমপুরীর।

সম্প্রতি দক্ষিণের একাধিক রাজ্যে পালিত হয় আদি অমাবাসাই। অশুভকে শক্তি সরাতেই এই দিন উদযাপন করা হয়। তবে সেই লক্ষ্যেই সকলের থেকে কয়েক ধাপ এগিয়ে গিয়েছেন এই ব্যক্তি।

নাদাপানাহাল্লি গ্রামের এক মন্দিরের পুরোহিত তিনি। আদি অমাবাসাইয়ের দিন লঙ্কা গুঁড়ো মেশানো জলে স্নান করেন তিনি। তাঁর বিশ্বাস, এভাবে স্নান করলে অশুভ শক্তি দূর হয়। আসে বিপুল সৌভাগ্য।

এদিকে ১০৮ কেজি লঙ্কা তো মুখের কথা নয়। লঙ্কার তীব্র ঝাঁঝে তাঁর ধারে কাছেও আসতে পারছিলেন না স্থানীয়রা। স্নান শেষ হতেই সবাই মিলে ঠান্ডা জল ঢালতে শুরু করেন পুরোহিতের গায়ে।

প্রতি বছরই নাদাপানাহাল্লির এই মন্দিরে আদি আমবাসাই ধুমধাম করে পালিত হয়। গ্রামের দেবতা পেরিয়া কারুপ্পাস্বামীর পুজো করেন স্থানীয়রা। আর এই পুজোয় বেশ কিছু ব্যাতিক্রমী রীতি-নীতি রয়েছে। যেমন, গ্রামবাসীরা লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে পুজো দেন পেরিয়া কারুপ্পাস্বামীকে। এমনকি মদ ও চুরুট দেওয়া হয় পুজোর নৈবেদ্যতে।

নৈবেদ্যতে।

বন্ধ করুন