বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > উত্তরপ্রদেশে মসনদ কি ধরে রাখতে পারবেন যোগী! ভোট ঘিরে সমীক্ষা একনজরে
উত্তরপ্রদেশের জনসভায় যোগী আদিত্যনাথ। ছবি সৌজন্য এএনআই। (Pawan Kumar)
উত্তরপ্রদেশের জনসভায় যোগী আদিত্যনাথ। ছবি সৌজন্য এএনআই। (Pawan Kumar)

উত্তরপ্রদেশে মসনদ কি ধরে রাখতে পারবেন যোগী! ভোট ঘিরে সমীক্ষা একনজরে

  • উত্তরপ্রদেশে বিজেপি থেকে সমাজবাদী পার্টি, কংগ্রেস, বিএসপি কে কোন তিমিরে রয়েছে, তার আঁচ করেছে একাধিক ওপিনিয়ন পোল।

উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচন ২০২২ সালের দামামা বেজে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। ভোট ঘিরে আপাতত চূড়ান্ত কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। রাজনৈতিক তাপ উত্তাপের মধ্যেই লখনউয়ের অট্টালিকা থেকে কানপুরের চায়ের দোকান পর্যন্ত প্রশ্ন একটাই, এবারের ভোটে জিতবে কে? ভোটের হাওয়া আঁচ করতে একাধিক সংস্থা সমীক্ষা শুরু করেছে যোগীরাজ্যের রাজনৈতিক আঙ্গনে। দেখে নেওয়া যাক , যোগীরাজ্যের এই ভোটে টাইমস নাউ-এর সমীক্ষায় রাজনৈতিক হাওয়া কোনদিকে? এছাড়াও সিভোটারের সমীক্ষাতেও গোলবলয় রাজনীতির এই ভোট নিয়ে উঠে এসেছে একাধিক পরিসংখ্যান।

৪০৩ আসনের বিধানসভা ভোটের লড়াইয়ে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি থেকে সমাজবাদী পার্টি, কংগ্রেস, বিএসপি কে কোন তিমিরে রয়েছে, তার আঁচ করেছে টাইমস নাওয়ের সমীক্ষা। ওপিনিয়ন পোল অনুযায়ী, বিজেপি গত বিধানসভা ভোটের মতে ৩০০ আসন উত্তরপ্রদেশে দখলে রাখতে পারবে না। তবে, সমাজবাদী পার্টি সহ বাকিদের ছাপিয়ে যাওয়ার ক্ষমতা এখনও রাখে যোগী শিবির। ভোটের আগের সমীক্ষা অনুযায়ী, ৪০৩ আসনের মধ্যে বিজেপি পেতে পারে ২২৭ থেকে ২৫৪ টি আসন। সমাজবাদী পার্টির জোট পেতে পারে, ১৩৬ থেকে ১৫১ টি আসন। এদিকে, উত্তরপ্রদেশের মসনদে চারবার মুখ্যমন্ত্রী থাকা বহুজন সমাজবাদী পার্টির মায়াবতী এবার ভোটের হাওয়ায় একটু পিছিয়ে রয়েছেন বলে মত টাইমস নাউয়ের ওপিনিয়ন পোলের। সমীক্ষা বলছে, এই ভোটে মায়াবতীর বিএসপি পেতে পারে ৮ থেকে ১৪ টি আসন। অন্যদিকে, উত্তপ্রদেশের পদ্মগড়ে 'হাত' পোক্ত করার চেষ্টায় রয়েছে কংগ্রেস। সমীক্ষা বলছে, প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নেতৃত্বাধীন উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস ২০২২ ভোটে ৬ থেকে ১১ টি আসন পেতে পারে।

হাইভোল্টেজ এই বিধানসভা নির্বাচনে মুখ্যমন্ত্রী পদ ঘিরেও হয়েছে সমীক্ষা। সমীক্ষা অনুযায়ী, যোগী আদিত্যনাথ সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় নেতা হিসাবে উঠে এসেছেন টাইমস নাউয়ের সমীক্ষায়। তাঁর পক্ষে ভোট গিয়েছে ৫৩.৪ শতাংশ। সমাজবাদী পার্টির অখিলেশকে মুখ্যমন্ত্রী দেখতে চাইছেন ৩১.৫ শতাংশ। কংগ্রেসের প্রার্থীকে মুখ্যমন্ত্রী দেখতে চাইছেন ২.৫ শতাংশ, যেখানে ফের একবার মায়াবতীকে তখতে দেখতে চাইছেন ১১.৫ শতাংশ মানুষ। এমনই দাবি টাইমস নাউয়ের সমীক্ষায়।

এদিকে, সিভোটারের সমীক্ষা বলছে, ৪০৩ এর মধ্যে যোগী শিবির দখলে রাখতে পারবে ২২৩ থেকে ২৩৫ টি আসন। তবে অখিলেশদের ভোটব্যাঙ্ক ২০২২ সালে ২০১৭ সালের তুলনায় বেশি সমৃদ্ধ হবে বলে দাবি করছে সমীক্ষা। তবে ভোট বাড়লেও, মসনদ দখল অখিলেশদের পক্ষে দূর অস্ত বলে দাবি সমীক্ষায়। ২০২২ সালের উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা ভোটে অখিলেশদের সমাজবাদী পার্টির পক্ষে ১৪৫ থেকে ১৫৭ টি ভোট পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সিভোটারের সমীক্ষা বলছে, মায়াবতীর বিএসপি ৮ থেকে ১৬ টি আসন পেতে পারে। কংগ্রেসের ৩ টি আসন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে কংগ্রেস উত্তরপ্রদেশের বুকে শূণ্যও পেতে পারে বলে সমীক্ষা দাবি করছে। অন্যান্যরা ৪ থেকে ৮ টি আসন পেতে পারে ৪০৩ আসনের এই বিধানসভা ভোটে।

 

বন্ধ করুন