পুলিশের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ প্রিয়াঙ্কার (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
পুলিশের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ প্রিয়াঙ্কার (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

'গলা টিপে ধরা হয়', উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রিয়াঙ্কার

  • যদিও প্রিয়াঙ্কাকে হেনস্থার অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ। তাদের দাবি, নির্ধারিত রাস্তায় না গিয়ে অন্য রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল প্রিয়াঙ্কার গাড়ি। সেজন্য গাড়ি আটকানো হয়েছে।

উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিরুদ্ধে শারীরিক হেনস্থার অভিযোগ তুললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা। কংগ্রেস নেত্রীর অভিযোগ, তাঁর গলা টিপে ধরেছিলেন এক মহিলা পুলিশ। তাঁকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়ারও অভিযোগ করেছেন প্রিয়াঙ্কা।

কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠা দিবসের অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য গতকাল লখনউয়ে গিয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা। সেখান থেকে প্রাক্তন আইপিএস অফিসার এসআর দারাপুরী ও কংগ্রেস নেত্রী সাদাফ জাফরের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে রওনা দেন তিনি। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগে গত ১৯ ডিসেম্বর দারাপুরী ও সাদাফকে গ্রেফতার করেছিল যোগী আদিত্যনাথের পুলিশ।

ুলিশ।

কংগ্রেসের অভিযোগ, দারাপুরীর বাড়ি যাওয়ার পথে প্রিয়াঙ্কার পথ আটকায় পুলিশ। গাড়ি থেকে নেমে কিছুটা হেঁটে দলের এক কর্মীর স্কুটারে উঠে পড়েন প্রিয়াঙ্কা। দু'কিলোমিটার পর ফের প্রিয়াঙ্কাকে আটকানো হয়। তখন পুলিশের সঙ্গে একপ্রস্থ ধস্তাধস্তির পরিস্থিতি তৈরি হয়। কয়েকজন মহিলা পুলিশকর্মী প্রিয়াঙ্কাকে আটকানোর চেষ্টা করেন। কংগ্রেস নেত্রীর অভিযোগ, তখন তাঁকে হেনস্থা করা হয়। প্রিয়াঙ্কা বলেন, 'আমায় আটকানো হয়। গলা টিপে পুলিশ আমায় আটকায়। আমায় জাপটে ধরে ঠেলে দেওয়া হয়। আমি পড়ে যাই। তারপর আমি দলীয় কর্মীয় স্কুটারে বসে যাই। মহিলা পুলিশকর্মীরা আমায় আটকেছিলেন।'

শেষপর্যন্ত কিছুটা পথ হেঁটেই দারাপুরীর বাড়িতে পৌঁছান প্রিয়াঙ্কা। দেখা করেন প্রাক্তন আইপিএস অফিসারের পরিবারের সঙ্গে।

যদিও প্রিয়াঙ্কাকে হেনস্থার অভিযোগ অস্বীকার করেছে পুলিশ। তাদের দাবি, নির্ধারিত রাস্তায় না গিয়ে অন্য রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিল প্রিয়াঙ্কার গাড়ি। সেজন্য গাড়ি আটকানো হয়েছে। লখনউয়ের সিনিয়র পুলিশ সুপার কালানিঘি বলেন, 'অর্চনা সিং নামে যে পুলিশকর্মীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে তিনি জানিয়েছেন, প্রিয়াঙ্কার গলা টিপে ধরা ও তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার খবর সম্পূর্ণ মিথ্যা। তিনি জানিয়েছেন, তিনি শুধু নিজের দায়িত্ব পালন করছিলেন।'

বন্ধ করুন