বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Vaccine: আতঙ্কের দিন শেষ! জরায়ুর ক্যানসারের বিরুদ্ধে ভারতে শুরু হবে টিকাকরণ

Vaccine: আতঙ্কের দিন শেষ! জরায়ুর ক্যানসারের বিরুদ্ধে ভারতে শুরু হবে টিকাকরণ

এবার সার্ভিকাল ক্যানসারের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন আসছে দেশে। প্রতীকী ছবি (HT_PRINT)

কোভিড ওয়ার্কিং গ্রুপ NTAGI'র চেয়ারপার্সন ডাঃ এনকে অরোরা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, ৮৫-৯০ শতাংশ সার্ভিকাল ক্যানসার বা জরায়ুর ক্যানসার মূলত ওই ভাইরাস থেকেই হয়। বাচ্চাদের বিশেষত মেয়েদের এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয় তবে তারা এই সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাবেন। অন্তত ৩০ বছর ধরে ক্যানসার হবে না।

সৌম্য পিল্লাই

দেশে প্রথম সার্ভিকাল ক্যানসারের বিরুদ্ধে টিকারকরণ শুরু হবে। সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে যৌথভাবে ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োটেকনোলজির যৌথ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে এই কর্মযজ্ঞ। Quadrivalent Human Papillomavirus vaccine(qHPV) নামেই পরিচিত এই ভ্যাকসিন। বুধবার বিবৃতি জারি করে একথা জানানো হয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং দিল্লিতে এই টিকার সূচণা করবেন। এদিকে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মতে, জরায়ুর ক্যানসারের দিক থেকে বিশ্বে তৃতীয় স্থানে রয়েছে এই ভারতবর্ষ। সব মিলিয়ে ১.২৩ লাখ মানুষ আক্রান্ত এই রোগে। প্রতি বছর অন্তত ৬৭ হাজার মানুষের মৃত্যু হয় এই রোগে আক্রান্ত হয়ে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে এই ভ্যাকসিন রোগের বিরুদ্ধে অ্যান্টিবডি তৈরি করবে। আর দেশীয়ভাবে তৈরি এই ভ্যাকসিন অনেকটাই সস্তা হবে।

আধিকারিকদের মতে, অনেকটা হেপাটাইটিস বিএর প্রতিরোধের মতো হবে এই ভ্যাকসিন। এগুলি সাধারণত VLP নামে পরিচিত। অর্থাৎ virus like particles থাকবে এক্ষেত্রে। এটি ভাইরাসের বিরুদ্ধে শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি করবে।

মূলত ৯-১৪ বছর বয়সী প্রায় ৫০ মিলিয়ন মেয়েকে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হতে পারে। গত জুলাই মাসে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়া এই ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দিয়েছিল।

কোভিড ওয়ার্কিং গ্রুপ NTAGI'র চেয়ারপার্সন ডাঃ এনকে অরোরা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, ৮৫-৯০ শতাংশ সার্ভিকাল ক্যানসার বা জরায়ুর ক্যানসার মূলত ওই ভাইরাস থেকেই হয়। এই ভ্যাকসিন ওই ভাইরাসের বিরুদ্ধে কাজ করবে। যদি বাচ্চাদের বিশেষত মেয়েদের এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয় তবে তারা এই সংক্রমণ থেকে রক্ষা পাবেন। অন্তত ৩০ বছর ধরে ক্যানসার হবে না।

এতদিন আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে এই ভ্যাকসিনের অভাব ছিল। এবার এসে গেল দেশের ভ্যাকসিন।

 

বন্ধ করুন