বাংলা নিউজ > ছবিঘর > বাঁ পায়ের গোড়ালিতে আঘাতের চিহ্ন,শর্ববী দত্তের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে ধোঁয়াশা

বাঁ পায়ের গোড়ালিতে আঘাতের চিহ্ন,শর্ববী দত্তের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে ধোঁয়াশা

  • বৃহস্পতিবার দিনভর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি শর্বরী দত্তের,দাবি ছেলের। রাতে ড্রয়িং রুমের শৌচাগার থেকে উদ্ধার দেহ।
  • ময়নাতদন্তের রিপোর্ট না এলে মৃত্যুর কারণ নিয়ে কিছুই বলা যাবে না, জানিয়েছে কলকাতা পুলিশ। 
বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে আচমকাই এল জনপ্রিয় ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্তের মৃত্যু সংবাদ। এই অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে ক্রমেই বাড়ছে ধোঁয়াশা। কীভাবে কিংবা কখন মৃত্যু হয়েছে শর্বরী দত্তের তা জানা যায় নি। রাত ১১.৩০ টা নাগাদ পরিবারের লোক উদ্ধার করে শর্বরী দেবীর দেহ। (ছবি-ফেসবুক)
1/6বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে আচমকাই এল জনপ্রিয় ফ্যাশন ডিজাইনার শর্বরী দত্তের মৃত্যু সংবাদ। এই অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে ক্রমেই বাড়ছে ধোঁয়াশা। কীভাবে কিংবা কখন মৃত্যু হয়েছে শর্বরী দত্তের তা জানা যায় নি। রাত ১১.৩০ টা নাগাদ পরিবারের লোক উদ্ধার করে শর্বরী দেবীর দেহ। (ছবি-ফেসবুক)
পরিবার সূত্রে খবর ১৬ তারিখ রাতে ডিনারে শেষবার শর্বরী দত্তের সঙ্গে দেখা হয় ছেলের। বৃহস্পতিবার দিনভর কোনও যোগাযোগ হয়নি। সকলেই ভেবেছিলেন কাজে ব্যস্ত রয়েছেন শর্বরী দত্ত। অবশেষে রাতে ডিনারের সময়ও দেখা না মেলায় খোঁজ শুরু হয় তাঁর। অবশেষে ড্রয়িং রুমের শৌচাগার থেকে ডিজাইনারের নিথর দেহ মেলে। (ছবি-ফেসবুক)
2/6পরিবার সূত্রে খবর ১৬ তারিখ রাতে ডিনারে শেষবার শর্বরী দত্তের সঙ্গে দেখা হয় ছেলের। বৃহস্পতিবার দিনভর কোনও যোগাযোগ হয়নি। সকলেই ভেবেছিলেন কাজে ব্যস্ত রয়েছেন শর্বরী দত্ত। অবশেষে রাতে ডিনারের সময়ও দেখা না মেলায় খোঁজ শুরু হয় তাঁর। অবশেষে ড্রয়িং রুমের শৌচাগার থেকে ডিজাইনারের নিথর দেহ মেলে। (ছবি-ফেসবুক)
সেই সময় খবর দেওয়া হয় পারিবারিক চিকিত্সক অমল ভট্টাচার্যকে। তিনি পুলিশকে খবর দিতে বলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় কড়েয়া থানার পুলিশ।একই সঙ্গে পৌঁছান চিকিত্সক। পৌঁছেছিল লালবাজার হোমিসাইড শাখার আধিকারিকরাও।পুলিশ সূত্রে খবর- শর্বরী দত্তের বাঁ পায়ের গোড়ালির কাছে আঘাতের চিহ্ন, মুখ থেকে রক্ত বেরিয়েছে। বাথরুমেও রক্তের দাগ স্পষ্ট ছিল। তবে কী কারণে মৃত্যু হয়েছে তাঁর তা এখন বলা সম্ভবপর নয়। (ছভি-ফেসবুক)
3/6সেই সময় খবর দেওয়া হয় পারিবারিক চিকিত্সক অমল ভট্টাচার্যকে। তিনি পুলিশকে খবর দিতে বলেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় কড়েয়া থানার পুলিশ।একই সঙ্গে পৌঁছান চিকিত্সক। পৌঁছেছিল লালবাজার হোমিসাইড শাখার আধিকারিকরাও।পুলিশ সূত্রে খবর- শর্বরী দত্তের বাঁ পায়ের গোড়ালির কাছে আঘাতের চিহ্ন, মুখ থেকে রক্ত বেরিয়েছে। বাথরুমেও রক্তের দাগ স্পষ্ট ছিল। তবে কী কারণে মৃত্যু হয়েছে তাঁর তা এখন বলা সম্ভবপর নয়। (ছভি-ফেসবুক)
অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আজ এনআরএস হাসপাতালে দুপুর ১২টার পর ময়নাতদন্ত হবে শর্বরী দত্তের। সেই রিপোর্ট এসেই মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে কিছু বলা সম্ভবপর হবে, জানিয়েছে পুলিশ। (ছবি-ফেসবুক)
4/6অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। আজ এনআরএস হাসপাতালে দুপুর ১২টার পর ময়নাতদন্ত হবে শর্বরী দত্তের। সেই রিপোর্ট এসেই মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে কিছু বলা সম্ভবপর হবে, জানিয়েছে পুলিশ। (ছবি-ফেসবুক)
পরিবারের দাবি দীর্ঘদিন ধরেই বেশ কিছু ওষুধ খেতেন শর্বরী দত্ত।'উনি একটা হরমোনের ওষুধ খেতেন, যার জন্য উনার রেগুলার পিরিয়ডসের মতো রক্তপাত হত, বাথরুমে তেমনই রক্ত পড়ে আছে বলেই ওঁর পুত্রবধূর দাবি', জানিয়েছেন চিকিত্সক অমল ভট্টাচার্য।
5/6পরিবারের দাবি দীর্ঘদিন ধরেই বেশ কিছু ওষুধ খেতেন শর্বরী দত্ত।'উনি একটা হরমোনের ওষুধ খেতেন, যার জন্য উনার রেগুলার পিরিয়ডসের মতো রক্তপাত হত, বাথরুমে তেমনই রক্ত পড়ে আছে বলেই ওঁর পুত্রবধূর দাবি', জানিয়েছেন চিকিত্সক অমল ভট্টাচার্য।
সেই সব ওষুধের স্যাম্পেলও ইতিমধ্যেই সংগ্রহ করেছে পুলিশ। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে যান শর্বরী দেবী নাকি ওষুধের সাইড এফেক্ট কিংবা অন্য কোনও রহস্য- সব দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ। (ছবি-ফেসবুক)
6/6সেই সব ওষুধের স্যাম্পেলও ইতিমধ্যেই সংগ্রহ করেছে পুলিশ। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে যান শর্বরী দেবী নাকি ওষুধের সাইড এফেক্ট কিংবা অন্য কোনও রহস্য- সব দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ। (ছবি-ফেসবুক)
অন্য গ্যালারিগুলি