বাংলা নিউজ > ময়দান > লা লিগা-র অঙ্কটা জটিল হয়েই থাকল, বরং আটলেটিকোর সঙ্গে ড্র করে চাপ বাড়াল বার্সা
ক্রমশ পিছিয়ে পড়ছেন মেসিরা। ছবি: রয়টার্স (REUTERS)
ক্রমশ পিছিয়ে পড়ছেন মেসিরা। ছবি: রয়টার্স (REUTERS)

লা লিগা-র অঙ্কটা জটিল হয়েই থাকল, বরং আটলেটিকোর সঙ্গে ড্র করে চাপ বাড়াল বার্সা

  • বার্সেলোনা ৩৫ ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার দুইয়ে জায়গা করে নিয়েছে। তবে শনিবারের ম্যাচ জিতলে ৭৬ পয়েন্ট হয়ে যেত তাদের।

আশা করা হয়েছিল আটলেটিকো মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনার ম্যাচের পর লা লিগার ছবিটা পরিষ্কার হয়ে যাবে। কিন্তু সে সব কিছুই হল না। গোলশূন্য ড্র করেই দুই দলকে সন্তুষ্ট থাকতে হল। তবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দৌড়ে কিন্তু অনেকটাই পিছিয়ে পড়ল লিওনেল মেসির দল।

আটলেটিকো ম্যাচের আগে বার্সার সতীর্থদের উৎসাহ দিতে নিজের বাড়িতে ডেকে ডিনার পার্টির আয়োজন করেছিলেন মেসি। কিন্তু খেলায় তার নমুনা পাওয়া গেল না। মেসি বা তাঁর দলের সতীর্থদের মধ্যে গোল করার ইচ্ছেটাই বিশেষ ছিল না। যার ফল হাতেনাতেই পেল বার্সা। নিজেদের ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যু-তে গোলশূন্য ড্র করল তারা। 

এই ম্যাচ ড্র হওয়ায় বার্সার তুলনায় বরং কিছুটা হলেও লাভ হল আটলেটিকো মাদ্রিদের। বার্সেলোনার মতো দলের বিরুদ্ধে তারা এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়তে পারল। এমনিতেই লা লিগার শীর্ষে রয়েছে এটিএম। এ দিনের ম্যাচ ড্র করায় ৩৫ ম্যাচে ৭৭ পয়েন্ট হল তাদের। তবে জিতলে এ দিন অনেকটাই এগিয়ে যেতে পারত আটলেটিকো মাদ্রিদ।

বার্সেলোনা আবার ৩৫ ম্যাচে ৭৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকার দুইয়ে জায়গা করে নিয়েছে। তবে শনিবারের ম্যাচ জিতলে ৭৬ পয়েন্ট হয়ে যেত তাদের। সে ক্ষেত্রে আটলেটিকোকে ধরে ফেলতে পারত তারা।

বার্সা-এটিএম ম্যাচ ড্র হওয়ায় বোধহয় সবচেয়ে বেশি খুশি হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। তারা এই মুহূর্তে লিগ তালিকার তিন নম্বরে রয়েছে। ৩৪ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৭৪। ভারতীয় সময়ে রবিবার গভীর রাতে তারা সেভিয়ার মুখোমুখি হবে। সেই ম্যাচ জিততে পারলেই ৭৭ পয়েন্ট নিয়ে আটলেটিকোকে ধরে ফেলবে রিয়াল। সেক্ষেত্রে বার্সেলোনার সঙ্গে চার পয়েন্টের ব্যবধান হয়ে যাবে। লিগের শেষের দিকে এই চার পয়েন্টের ব্যবধান কিন্তু অনেকটাই বেশি।

লা লিগার যা পরিস্থিতি তাতে, এ দিনের ম্যাচ ড্র হওয়ায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে মেসির বার্সেলোনারই।

বন্ধ করুন