বাংলা নিউজ > ময়দান > Aisa Cup 2023: পাকিস্তানে একেবারেই নয় এশিয়া কাপ, 'হাইব্রিড' মডেলে রাজি নয় BCCI- রিপোর্ট

Aisa Cup 2023: পাকিস্তানে একেবারেই নয় এশিয়া কাপ, 'হাইব্রিড' মডেলে রাজি নয় BCCI- রিপোর্ট

বিসিসিআই সচিব জয় শাহ। ছবি- রয়টার্স (REUTERS)

হাইব্রিড মডেলে এশিয়া কাপ খেলতে চায় না বিসিসিআই। আগামী রবিবার আইপিএল ফাইনাল দেখতে উপস্থিত থাকবেন শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ সহ একাধিক ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা। সেখানেই সিদ্ধান্ত হতে পারে।

শেষের মুখে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগ। এরপর থেকেই বিশ্ব ক্রিকেটের বিভিন্ন জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট শুরু হবে। এই বছরই রয়েছে এশিয়া কাপ, একদিনের ক্রিকেট বিশ্বকাপ ও বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল। তবে এশিয়া কাপ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই টালবাহানা চলছে। ভারত-পাক দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের মধ্যে ঝামেলার সৃষ্টি হয়েছে এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন বিসিসিআই সচিব জয় শাহ। তিনি জানিয়েছেন আইপিএলের ফাইনালের পরই এশিয়া কাপের ভাগ্য নির্ধারিত হবে।

এই বছরের এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা পাকিস্তানে। তবে শুরু থেকেই পাকিস্তানে খেলতে যাওয়া নিয়ে বেঁকে বসেছে ভারত। শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানে যদি এশিয়া কাপ অনুষ্ঠিত হয় তাহলে ভারত দল পাঠাবে না বলেই আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিসিসিআই চায় নিরপেক্ষ স্থানে হোক এশিয়া কাপ। সেক্ষেত্রে তাদের প্রথম পছন্দের তালিকায় সংযুক্ত আরব আমিরশাহী, শ্রীলঙ্কার নাম উঠে আসে। এশিয়া কাপ নিয়ে কয়েক দফা বৈঠকও হয়েছে। তবে তার সমাধান সূত্র বের হয়নি। প্রথমে পাকিস্তান বেঁকে বসলেও পরে তারা জানিয়েছে ভারত চাইলে অন্য কোনও নিরপেক্ষ স্থানে তাদের ম্যাচ খেলতে পারে। সেক্ষেত্রে আবুধাবিকেই অগ্রাধিকার দিয়েছে তারা।

পাকিস্তানও ভারতে হতে চলা একদিনের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ম্যাচ নিরপেক্ষ কোনও ভেনুতে করার দাবি তোলে। তবে এই সবটাই রয়েছে আলোচনার স্তরে। এশিয়া কাপ এগিয়ে আসতে থাকলেও তার জট মুক্তি কবে হবে সেই বিষয়ে নিশ্চয়তা ছিল না। তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সচিব জয় শাহ জানিয়েছেন, আইপিএল ফাইনাল হয়ে যাওয়ার পরই এশিয়া কাপের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনায় বসবেন তারা। তবে বিসিসিআই হাইব্রিড মডেলে এশিয়া কাপ খেলতে চায় না। তা পিসিবিকে জানিয়ে দিয়েছে বিসিসিআই।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে আগে জানানো হয়েছে ২৮ মে আমদাবাদে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে ফাইনালের দিন উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ, আফগানিস্তান এবং শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানরা। এর আগে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার ক্রিকেট বোর্ড পাকিস্তান থেকে এশিয়া কাপ সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে ভারতকে সমর্থন করেছে। আইপিএল ফাইনালের দিন এই নিয়ে কোনও সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসে কি না সেই দিকে নজর থাকবে সবার। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের সভাপতি এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সচিব জয় শাহ সম্প্রতি জানান, ‘বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা এবং আফগানিস্তানের ক্রিকেট বোর্ডের প্রধানরা আইপিএলের ফাইনালের দিন নরেন্দ্র মোদী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উপস্থিত থাকবেন। সেই দিন এশিয়া কাপের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমরা আলোচনা করব।’ এশিয়া কাপ শুরু হতে বাকি রয়েছে মাত্র চার মাস। আইপিএলের ফাইনালের পর কোনও সমাধান সূত্র বের হয় কিনা সেই দিকেই তাকিয়ে গোটা বিশ্ব ক্রিকেট।

বন্ধ করুন