বাংলা নিউজ > ময়দান > 'সৎ' থাকতেই অবসরে স্টোকস, অতিরিক্ত ক্রিকেট নিয়ে আইসিসিকে একহাত হুসেনের
স্টোকস (Reuters)

'সৎ' থাকতেই অবসরে স্টোকস, অতিরিক্ত ক্রিকেট নিয়ে আইসিসিকে একহাত হুসেনের

  • বেন স্টোকসের দীর্ঘ অবসরপত্রে এই দুটি লাইন আলাদা করে উল্লেখ করার মতো ছিল। একজন ক্রিকেটার দলকে শতভাগ উজাড় করে দিতে পারছেন না বলে অবসর ঘোষণা করছেন যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দল, দেশ এবং সতীর্থদের প্রতি কমিটমেন্টের সেরা উদাহরণ রাখলেন স্টোকস।

শুভব্রত মুখার্জি: অতিরিক্ত ক্রিকেটের চাপ কি ক্রিকেটাররা আর নিতে পারছেন না! অন্ততপক্ষে বেন স্টোকসের ঘটনা চোখে আঙুল দিয়ে সেটাই দেখিয়ে দিল। ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডারের হঠাৎ করেই ওয়ানডে ফর্ম্যাট থেকে অবসর গ্রহণের সিদ্ধান্ত আঙুল তুলে দিল আইসিসির নীতির দিকেই। প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক নাসের হুসেন তো একেবারে সরাসরি আঙুল তুলে দিলেন আইসিসির দিকেই। কার্যত চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ শানালেন তিনি।

স্কাই স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে স্টোকসের ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে হঠাৎ অবসর প্রসঙ্গে বলেন 'আইসিসি যদি দিনের পর দিন এইভাবে নিজের ইভেন্ট চাপিয়ে দিতে থাকে। বোর্ডগুলোও যদি (ক্রিকেট ক্যালেন্ডারের) ফাঁকা জায়গাটা নিজেদের আয়োজিত সিরিজ দিয়ে ভরিয়ে দেয় শেষমেশ তো এই ক্রিকেটাররা (স্টোকস) বলবেন যে আমি শেষ, আর পারছি না। ৩১ বছর বয়সেই বেন স্টোকসের একটা ফর্ম্যাটে খেলা শেষ হয়ে গেল। সত্যি সত্যিই এটা একেবারে ঠিক নয়। সূচির প্রতি দৃষ্টিপাত করতে হবে। এই মুহূর্তে বিষয়টা হাস্যকর হয়ে যাচ্ছে।'

উল্লেখ্য দিনের প্রথম দিকে এদিন স্টোকস ওয়ানডে থেকে নিজের অবসর প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বলেন 'এটা ছিল আমার জীবনের কঠিনতম সিদ্ধান্ত। এই সংস্করণে সতীর্থদের জন্য আমি আর নিজের শতভাগ উজাড় করে দিতে পারছি না। ইংল্যান্ডের জার্সি এর চেয়ে কম কিছু পেতে পারে না।' বেন স্টোকসের দীর্ঘ অবসরপত্রে এই দুটি লাইন আলাদা করে উল্লেখ করার মতো ছিল। একজন ক্রিকেটার দলকে শতভাগ উজাড় করে দিতে পারছেন না বলে অবসর ঘোষণা করছেন যা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। দল, দেশ এবং সতীর্থদের প্রতি কমিটমেন্টের সেরা উদাহরণ রাখলেন স্টোকস।

স্টোকস টেস্ট খেলা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ইংল্যান্ডের টি-২০ দলেরও নিয়মিত সদস্য তিনি। তিন ফর্ম্যাটে সমানভাবে নিজেকে উজাড় করে দেওয়া এখন আর স্টোকসের পক্ষে সম্ভব হচ্ছিল না। ওয়ার্কলোড বেড়ে যাচ্ছিল। বর্তমান সময়ে ব্যস্ত ক্রিকেটসূচির মাঝে ওয়ার্কলোড খুব আলোচিত বিষয়। ভারত ক্রিকেটারদের ওয়ার্কলোড কমাতে খেলাচ্ছে তিন‌ তিনটি দল!

দলের প্রতি এই সততা বেশির ভাগ ক্রিকেটারের মধ্যেই এখন বিরল।স্টোকসের টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। অধিনায়ক হয়েই দলকে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে। টুইটে লিখেছেন, 'তিন ফর্ম্যাটে চালিয়ে যাওয়া আমার পক্ষে অসম্ভব হয়ে পড়েছে। ...আমি টেস্ট ক্রিকেটে নিজের সর্বোচ্চটা উজাড় করে দেব। সেই সঙ্গে আমার বর্তমান সিদ্ধান্তের ফলে টি-২০ ফর্ম্যাটেও নিজের কমিটমেন্টের সর্বোচ্চটা দিতে পারব।'

বন্ধ করুন