বাংলা নিউজ > ময়দান > অলিম্পিক্স চ্যাম্পিয়ানকে হারালেন, গড়লেন নয়া নজির, US Open-এর সেমিতে রাডুকানু
এম্মা রাডুকানু। ছবি: পিটিআই
এম্মা রাডুকানু। ছবি: পিটিআই

অলিম্পিক্স চ্যাম্পিয়ানকে হারালেন, গড়লেন নয়া নজির, US Open-এর সেমিতে রাডুকানু

  • ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠা কোয়ালিফায়ার হিসেবে এম্মা রাডুকানু সেমিফাইনালে পৌঁছলেন। প্রসঙ্গত একদিন আগেই ১৯ বছর বয়সী লেইলা ফার্নান্দেজ এই নজির গড়েছিলেন চলতি ইউএস ওপেনে। তিনি ২০০৫ সালে গড়া মারিয়া শারাপোভার রেকর্ড ভেঙেছিলেন। তাঁর রেকর্ড গড়ার একদিনের মধ্যে সেই রেকর্ড ভেঙে ফেললেন রাডুকানু।

শুভব্রত মুখার্জি: চলতি ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ানশিপে সর্বশ্রেষ্ঠ চমকটা ভারতীয় সময় অনুসারে বৃহস্পতিবার গভীর রাতেই পেলেন ক্রীড়াপ্রেমীরা। বয়স মাত্র ১৮ বছর। সদ্য প্রফেশনাল হিসেবে ক্যারিয়ারে পথ চলা শুরু করেছেন ব্রিটেনের মহিলা লন টেনিস তারকা এম্মা রাডুকানু। সেই তিনিই সদ্য অলিম্পিক্স গেমসে চ্যাম্পিয়ান হওয়া বেলিন্ডা বেনচিচকে কার্যত খড়কুটোর মতন উড়িয়ে দিয়ে পৌঁছে গেলেন ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে। সেমিফাইনালে পৌঁছে একাধিক নজির গড়ে ফেললেন ।

লন টেনিসের ইতিহাসে চতুর্থ কোয়ালিফায়ার হিসেবে তিনি কোন গ্র্যান্ড স্ল্যামের সেমিফাইনালে পৌছে গেলেন। বলা ভাল এত বছরের ইতিহাসে 'ওপেন এরা'তে প্রথম মহিলা কোয়ালিফায়ার হিসেবে তিনি কোন গ্র্যান্ড স্ল্যামের সেমিফাইনালে উঠলেন।চমকের এখানেই শেষ নয়। এখনও পর্যন্ত তিনি একটি সেটও হারাননি। এখনও পর্যন্ত খেলা আটটি ম্যাচে তাঁর প্রতিপক্ষ তাঁর কাছ থেকে একটি সেটও কাড়তে পারেননি। কোয়ার্টার ফাইনালে টুর্নামেন্টের ১১তম বাছাই বেলিন্ডা বেনচিচকে তিনি ৬-৩,৬-৪ ফলে ধরাশায়ী করে দিলেন।

উল্লেখ্য, এটি রাডুকানুর প্রথম ইউএস ওপেন এবং দ্বিতীয় গ্র্যান্ড স্লাম। ইতিহাসে সর্বকনিষ্ঠা কোয়ালিফায়ার হিসেবে তিনি সেমিফাইনালে পৌঁছলেন। উল্লেখ্য মাত্র একদিন আগেই ১৯ বছর বয়সী লেইলা ফার্নান্দেজ এই নজির গড়েছিলেন চলতি ইউএস ওপেনে। তিনি ২০০৫ সালে গড়া মারিয়া শারাপোভার রেকর্ড ভেঙেছিলেন। তাঁর রেকর্ড গড়ার একদিনের মধ্যে সেই রেকর্ড ভেঙে ফেললেন রাডুকানু। প্রথম সেটে রাডুকানুর প্রথম সার্ভিস গেম ভেঙে একটা সময় ৩-১ ফলের লিড নিয়েছিলেন বেনচিচ। সেখান থেকে ম্যাচে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন ঘটান রাডুকানু। এরপর আর তাঁকে ম্যাচে ফিরে তাকাতে হয়নি।

বন্ধ করুন