বাংলা নিউজ > ময়দান > ব্রেট লি ও ডেল স্টেইন কী ভাবে ইশান পোড়েলের জীবন বদলে দিল
ব্রেট লি ও ডেল স্টেইনের মাঝে ইশান পোড়েল (ছবি: গুগল)
ব্রেট লি ও ডেল স্টেইনের মাঝে ইশান পোড়েল (ছবি: গুগল)

ব্রেট লি ও ডেল স্টেইন কী ভাবে ইশান পোড়েলের জীবন বদলে দিল

  • জীবনের শুরুতে অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, কেভিন পিটারসেন কিমবা ব্রেন্ডন ম্যাককালাম হতে চেয়েছিলেন বাংলার তথা ভারতের তরুণ পেস বোলার ইশান পোড়েল।

সালটা ২০২০, বাংলা রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে ইডেন গার্ডেন্সে খেলতে নেমেছে। তাদের সামনে তখন শক্তিশালী কর্ণাটক। কে নেই সেই কর্ণাটক দলে। সে বছর সম্পূর্ণ তারকাদের নিয়ে মাঠে নেমেছিল কর্ণাটক। কেএল রাহুল, মনীশ পান্ডের মতো তারকারা রয়েছে কর্ণাটকের ব্যাটিং লাইন আপে। সেই ম্যাচে বাংলা ৩১২ রান করে, জবাবে শক্তিশালী কর্ণাটক ব্যাটিং ভেঙে যায় মাত্র ১২২ রানে। তার কারণ অবশ্য একটাই ছিল। সেটা হল ইশান পোড়েলের ৩৯ রানে ৫ উইকেটের স্পেল। এই একটা স্পেলেই শেষ হয়েছিল কর্ণাটক। সেই ম্যাচে বাংলা জেতে এবং ২০০৬-০৭ সালের পরে ফের ফাইনালে খেলার ছাড়পত্র পেয়েছিল। 

২০১৮ অনুর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। সকলের নজরে আসেন তখন থেকেই। এরপরে ধীরে ধীরে জীবনের গতিতে এগিয়ে যেতে থাকেন তিনি। তবে আজকের দিনে দাঁড়িয়েও একটা কথা ভুলতে পারেননা ইশান। ব্যাটসম্যান হতে হতে কী করে যে পেস বোলার হয়ে উঠলেন।

জীবনের শুরুতে অ্যাডাম গিলক্রিস্ট, কেভিন পিটারসেন কিমবা ব্রেন্ডন ম্যাককালাম হতে চেয়েছিলেন বাংলার তথা ভারতের তরুণ পেস বোলার ইশান পোড়েল। সে কারণেই তিনি যখন ছোট বয়সে চন্দননগরে খেলার মাঠে যেতেন তখন তিনি নিজেকে ব্যাটসম্যান হিসাবেই পরিচিত করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেই সময় ঘটে আরও একটি কান্ড। 

ইশান পোড়েল জানান, একটা সময় তিনি পিটারসেন বা গিলক্রিস্টরা যে কোম্পানির ব্যাটে খেলতেন সেই কোম্পানির ব্যাটও কিনেছিলেন। তবে পরে আক্রমণাত্মক বোলার হতে চেয়েছিলেন। কারণ হিসাবে ইশান পোড়েল জানান, ‘আমি ব্রেট লি ও ডেল স্টেইনের মানসিকতাকে পছন্দ করতে থাকি। ওদের আক্রমনাত্মক স্বভাব, ওদের বোলিং করার স্টাইল এবং খেলার প্রতি ভালবাসা।’ এই দেখে ওদের প্রেমে পড়ে যান ইশান। এরপরে বোলার হওয়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন। অবশেষে নিজের স্বপ্নপূরণ করেন। এখন তিনি ধারাবাহিক ভাবে ১৪০ থেকে ১৪৫ কিলোমিটার বেগে বল করতে পারেন।

বন্ধ করুন