বাংলা নিউজ > ময়দান > 'ট্রেনিংয়ের সঙ্গে সেক্স লাইফের ভারসাম্য রাখেন কীভাবে?' প্রশ্ন শুনে বিরক্ত নীরজ
টোকিয়োয় ঐতিহাসিক সোনা জিতেছেন। তারপর থেকে উদ্ভট প্রশ্নে লাগাম পড়ছে না। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সঞ্জীব বর্মা/হিন্দুস্তান টাইমস)
টোকিয়োয় ঐতিহাসিক সোনা জিতেছেন। তারপর থেকে উদ্ভট প্রশ্নে লাগাম পড়ছে না। (ফাইল ছবি, সৌজন্য সঞ্জীব বর্মা/হিন্দুস্তান টাইমস)

'ট্রেনিংয়ের সঙ্গে সেক্স লাইফের ভারসাম্য রাখেন কীভাবে?' প্রশ্ন শুনে বিরক্ত নীরজ

  • টোকিয়োয় ঐতিহাসিক সোনা জিতেছেন। তারপর থেকে উদ্ভট প্রশ্নে লাগাম পড়ছে না।

কেউ জানতে চেয়েছেন বান্ধবীর বিষয়ে। কেউ আবার তাঁকে সামনে বসিয়ে উদ্দাম নেচেছেন। অলিম্পিক্সে ঐতিহাসিক সোনা জয়ের পর এমনই সব উদ্ভট সাক্ষাৎকারের মুখে পড়েছেন নীরজ চোপড়া। এবার তো সেই উদ্ভট প্রশ্নের মাত্রা আরও একধাপ ছাড়িয়ে গেল। তার জেরে রীতিমতো বিরক্তি প্রকাশ করলেন নীরজ।

টোকিও অলিম্পিক্সে ভারতের দুই পদকজয়ী অ্যাথলিট নীরজ এবং বজরং পুনিয়ার সঙ্গে 'ই-আড্ডার' আয়োজন করেছিল দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। ছিলেন দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের ক্রীড়া সম্পাদক এবং সহ-ত্রীড়া সম্পাদক। সেখানে অনেক নামীদামী অতিথিও ছিলেন। পুরোটাই ঠিক চলছিল। কিন্তু 'ই-আড্ডার' শেষ লগ্নে গিয়ে ডিজাইনার রাজীব শেট্টির প্রশ্নে রীতিমতো ক্ষুব্ধ হন ভারতের সোনার ছেলে।

রাজীব বলেন, ‘নীরজজি, বজরংভাই আপনারা কী সুন্দর। আমি আপনাকে একটা প্রশ্ন করব, যা কোটি কোটি মানুষ জানতে চান।’ হেসে নীরজ জানান, বজরং তো চলে গিয়েছেন। তারপর আবার প্রশ্ন করতে থাকেন রাজীব। তিনি বলেন, ‘দেশের কোটি কোটি মানুষ জিজ্ঞাসা করতে চান, কিন্তু ইতস্তত বোধ করেন। আপনার এই যে অ্যাথলেটিক্স ট্রেনিং আছে, সেটার সঙ্গে কীভাবে আপনি সেক্স লাইফের ভারসাম্য বজায় রাখেন? আমি জানি, এটা উদ্ভট প্রশ্ন। কিন্তু এটার পিছনে এটা গুরুতর প্রশ্ন আছে।’

সেই প্রশ্নে দৃশ্যতই অস্বস্তিতে পড়েন টোকিও অলিম্পিক্সে পুরুষদের জ্যাভেলিন থ্রো চ্যাম্পিয়ন নীরজ। থুতনিতে হাত দিয়ে বলতে থাকেন, 'সরি, স্যার। শুধু সরি বলে দিলাম, এটাই যা।' নীরজ বিরক্ত হওয়া সত্ত্বেও সেই প্রশ্ন আবারও বলতে থাকেন রাজীব। তাতে নীরজ সঞ্চালককে উদ্দেশ করে বলেন, ‘দয়া করে, আপনি জবাব দিয়ে দিন।’ তাতে রাজীব বলেন, ‘এই প্রশ্নের জন্য আমায় ক্ষমা করে দেবেন।’ প্রত্যুত্তরে রীতিমতো বিরক্তির সঙ্গে নীরজ বলেন, ‘আপনার প্রশ্নে এমনিতেই আমার মন ভরে গিয়েছে। কিন্তু, না। প্লিজ।’

বন্ধ করুন