বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > কোহলি কি কার্তিকের কেরিয়ার শেষ করে দিলেন? সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড়

কোহলি কি কার্তিকের কেরিয়ার শেষ করে দিলেন? সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্কের ঝড়

দীনেশ কার্তিক ও বিরাট কোহলি (ছবি-এএফপি)

দীনেশ কার্তিক রানআউট ভারতের ইনিংসের খুব একটা ক্ষতি করতে পারেনি। তবে দীনেশ কার্তিকের রান আউট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠতে তাকে। অনেকেই লেখেন বিরাট কোহলি হয়তো দীনেশ কার্তিকের কেরিয়ার শেষ করে দিলেন। অনেকেই লেখেন দীনেশ কার্তিক আউটই ছিলেন না।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার12 গ্রুপের ম্যাচের আগে দীনেশ কার্তিকের ফর্ম এবং ফিটনেস নিয়ে একটি বড় প্রশ্ন চিহ্ন ছিল। কিন্তু তিনি বুধবার ফিটনেস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন এবং ঋষভ পন্তের দলে খেলার স্বপ্নকে ভেঙে আবারও দলের প্রথম একাদশে জায়গা পাকা করে নেন। বুধবারের আগে কার্তিক যে দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন, তাতে ব্যাট হাতে তেমন কিছু করতে পারেননি দীনেশ কার্তিক।

আরও পড়ুন… বাংলাদেশের বিরুদ্ধে একাধিক মাইলস্টোন গড়লেন কোহলি, ভাঙলেন সচিনের রেকর্ড

এদিনের ম্যাচে ১৫.১ ওভারে হার্দিক পান্ডিয়ার উইকেটের পতনের সময় ব্যাট করতে নামেন ডিকে। তখন ভারতচার উইকেটে ১৩০ রান করেছিল। সেই সময়ে একটি ভালো ফিনিশের প্রয়োজন ছিল ভারতের। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে কার্তিক একটি বাউন্ডারির ​মেরে ভালো শুরুও করেছিলেন। কিন্তু ঠিক যখন তিনি ম্যাচে নিজের জায়গা তৈরি করছেন তখনই রান আউট হয়ে যান ডিকে। দীনেশ কার্তিকের এই আউটটি দেখে বহু সমর্থেক মন ভেঙে গিয়েছিল। অনেকেই এই ম্যাচে কার্তিকের ফিনিশরের ভূমিকাটি দেখতে চেয়েছিলেন। অ্যাডিলেড ওভালে তাঁর এমন আউট দর্শকদের জন্য হৃদয় বিদারক ছিল।

আরও পড়ুন… ভারতের সঙ্গে খেললেই এমনটা হয়- কী নিয়ে ঠিক আক্ষেপ শাকিবের?

দীনেশ কার্তিক রানআউট ভারতের ইনিংসের খুব একটা ক্ষতি করতে পারেনি। কারণ শাকিব আল হাসানের বোলিং-এর বিরুদ্ধে ৬ উইকেট হারিয়ে ভারত তুলেছিল ১৮৪ রান। কোহলি ৪৪ বলে অপরাজিত ৬৪ রান করেন। তবে দীনেশ কার্তিকের রান আউট নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় উঠতে তাকে। অনেকেই লেখেন বিরাট কোহলি হয়তো দীনেশ কার্তিকের কেরিয়ার শেষ করে দিলেন। অনেকেই লেখেন দীনেশ কার্তিক আউটই ছিলেন না।

ভারতের ব্য়াটিং ইনিংসের ১৭তম ওভারের শেষ বলে,বিরাট কোহলি একটি শট এক্সট্রা কভারের দিকে মারেন এবং কয়েক ধাপ এগিয়ে যান। কার্তিক পুরো গতিতে রওনা হন কিন্তু কোহলি তাকে ফেরত পাঠাতে তৎক্ষণাৎ হাত তুলে দেন। অভিজ্ঞ কিপার-ব্যাটার তার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছিলেন এবং এমনকি ডাইভ দিয়েছিলেন নিজের ক্রিজে পৌঁছানোর জন্য, কিন্তু তাতে তিনি সফল হননি। কার্তিক রান আউট হয়ে যান। যদিও কার্তিকের এই আউট নিয়ে অনেক প্রশ্ন ও বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

থার্ড আম্পায়ার,মাত্র কয়েকটি রিপ্লে দেখার পর সিদ্ধান্ত নেন যে বলটি বোলারের হাতের আগে স্টাম্পে লেগেছিল এবং কার্তিককে রান আউট বলে ঘোষণা করেন। অনেকেই মনে করেন বলটি লাগার আগে ক্রিকেটারের হাত স্টাম্পে লেগেছিল। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এটা স্পষ্ট হয়ে যায় যে বলটি প্রথমে স্টাম্পে আঘাত করেছিল। কিন্তু সেই আঘাতেই কি আসলে উইকেটের বেইলগুলিকে পড়েছিল নাকি বোলারের হাতে লেগে সেগুলি পড়ে ছিল তা নিয়ে অনেক বিতর্ক ছিল। তবুও কার্তিককে ৭ রানে সাজঘরে ফিরতে হয়েছিল।

বন্ধ করুন