বাংলা নিউজ > ময়দান > নির্বাচকরা কোথায়? কোহলিকে খুশি করলেই ভারতীয় দলের টিকিট, চাঞ্চল্যকর দাবি মনোজের
বিরাট কোহলিতে মুগ্ধ আকাশ দীপ।

নির্বাচকরা কোথায়? কোহলিকে খুশি করলেই ভারতীয় দলের টিকিট, চাঞ্চল্যকর দাবি মনোজের

  • এই বছরের আইপিএলের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের জার্সিতে অভিষেক হয়েছে আকাশ দীপের। ডান-হাতি সিমারকে প্রথমে আরসিবি আইপিএল ২০২১-এ আহত ওয়াশিংটন সুন্দরের বদলি হিসেবে বেছে নিয়েছিল। তিনি গত বছর কোনও খেলায় সুযোগ পাননি।

বিরাট কোহলিকে ঘিরে ফের বিতর্ক উস্কে গেল। বাংলার পেসার আকাশ দীপের একটি মন্তব্য ঘিরে একেবারে হইহই ব্যাপার। আকাশ একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, বাংলার তারকা ব্যাটার মনোজ তিওয়ারি গত বছরই আকাশ দীপকে পরমার্শ দিয়েছিলেন, যদি তিনি কোনও ভাবে কোহলিতে মুগ্ধ করতে পারেন, তবে শুধু আইপিএল নয়, ভারতীয় দলের সুযোগও পাকা হয়ে যাবে।

এই বছরের আইপিএলের রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের জার্সিতে অভিষেক হয়েছে আকাশ দীপের। ডান-হাতি সিমারকে প্রথমে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর আইপিএল ২০২১-এ আহত ওয়াশিংটন সুন্দরের বদলি হিসেবে বেছে নিয়েছিল। তিনি গত বছর কোনও খেলায় সুযোগ পাননি। কিন্তু মনোজ তিওয়ারি যেমন বলেছিলেন, তিনি কোহলিকে প্রভাবিত করতে পেরেছিলেন। যে কারণে এই বছর নিলামে তাঁকে আরসিবি ২০ লক্ষ দিয়ে দলে নেয়।

আরও পড়ুন: সমুদ্র সৈকতে ছুটি কাটাচ্ছেন কোহলি! বিরাটের ফর্মে ফেরার অপেক্ষায় ক্রিকেট বিশ্ব

আকাশ দীপ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেছেন, ‘মনোজ (তিওয়ারি) ভাইয়া বলেছিলেন, বিরাট ভারতের অধিনায়ক এবং যদি তাঁকে মুগ্ধ এবং প্রভাবিত করা যায়, তবে পরের মরশুমে আমি আইপিএলে খেলতে পারব, এবং ভারতের হয়েও খেলতে পারব। কারণ আমার কাছে নাকি ফাস্ট বোলার হওয়ার সমস্ত ভালো উপাদান রয়েছে। এটাই ছিল আমার লক্ষ্য। এবং আমি অনুশীলন ম্যাচে ভালো করতে পেরেছিলাম। তাই পরে নিলামে আমাকে বাছাই করা হয়েছিল।’

রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে বাংলার স্কোরের আপডেট পেতে ক্লিক করুন এখানে:

রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে বাংলার বোলিং আক্রমণের নেতৃত্ব দিচ্ছেন আকাশ দীপ। পাঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে আইপিএলে অভিষেক হয়েছিল। তাঁকে ক্যাপটি দেন কোহলি নিজেই। আকাশ দীপ বলেন, এটি তাঁর কাছে একটি স্বপ্ন পূরণের দিন ছিল।

তিনি বলেছেন, ‘ছোটবেলায়, যখন আমরা টিভিতে কোহলি এবং ধোনির খেলা দেখতাম, আমি ভাবতাম জীবনে ওদের সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পাব কি না। আমার কাছে ওরা সুপারহিরো ছিল। এবং আমি যে জায়গা থেকে এসেছি, আমি কখনই কল্পনাতেও ভাবতে পারিনি যে, আমি কোহলির সঙ্গে ড্রেসিংরুম ভাগ করে নেব। সব স্বপ্না হ্যায় (সবকিছুই স্বপ্ন)।’

কোহলিতে মুগ্ধ আকাশ দীপ আরও যোগ করেছেন, ‘আমি হতবাক হয়ে গিয়েছিলাম যে, তিনি জানেন আমি কোথা থেকে এসেছি, আমার যাত্রা, সংগ্রাম এবং সব কিছুই। আমাকে ক্যাপ দেওয়ার সময় বলেছিলেন, তুমি এখানে থাকার যোগ্য। অতীতে যা করে এসেছো, সেটাই করে চলো। শুধু নিজেকে উপভোগ করো। সেটি খুব আবেগপূর্ণ মুহূর্ত ছিল।’

বন্ধ করুন