বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs ENG: মাঠ ছাড়িয়ে লর্ডসের ড্রেসিংরুমেও তীব্র কথা কাটাকাটি হয় বিরাট-রুট বাহিনীর!
তৃতীয় দিনের শেষে মাঠেই বাক্য বিনিময় দুই দলের। ছবি- রয়টার্স। (Action Images via Reuters)
তৃতীয় দিনের শেষে মাঠেই বাক্য বিনিময় দুই দলের। ছবি- রয়টার্স। (Action Images via Reuters)

IND vs ENG: মাঠ ছাড়িয়ে লর্ডসের ড্রেসিংরুমেও তীব্র কথা কাটাকাটি হয় বিরাট-রুট বাহিনীর!

  • তৃতীয় দিনের শেষে অ্যান্ডারসনের বিরুদ্ধে বুমরাহর শর্ট বল করা নিয়েই দুই দলের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়।

লর্ডসে ভারত ও ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের মধ্যে তর্কাতর্কি ও উতপ্ত বাক্য বিনিময়ের বিষয়ে সকলেই অবগত। এই বাক্য বিনিময়ে ম্যাচকে আরও আকর্ষক করে তোলে। তবে শুধু মাঠের মধ্যেই দুই দলের মধ্যে তর্কাতর্কি মাঠের বাইরে ড্রেসিংরুম পর্যন্ত গড়ায়।

লর্ডসে এক সুবিশাল লং রুমেই দুই দল দুই ভিন্ন দিকে নিজেদের ড্রেসিংরুমে চলে যায়। সাধারণত এই লং রুম এমসিসি সদস্যদের দ্বারা পরিপূর্ণ থাকলেও, করোনার কারণে এখন সদস্যদের প্রবেশ নিষেধ। বদলে দুই দলের ডাইনিংরুম হিসাবেই এটি ব্যবহার করা হচ্ছে। Daily Telegraph-র এক রিপোর্ট অনুযায়ী এই রুমেই তৃতীয় দিনের শেষে তীব্র বিবাদে জড়ায় দুই দল।

লর্ডসে বিবাদ শুরু হয় জেমস অ্যান্ডারসনকে করা জসপ্রীত বুমরাহের ১০ বলের ওভার থেকে। নাগাড়ে অ্যান্ডারসনকে শর্ট বল করেন বুমরাহ, যা মোটেই ভালভাবে মেনে নেয়নি ইংল্যান্ড দল। এর জবাবেই তো বুমরাহ পঞ্চম দিনে ব্যাটে নামলে মার্ক উডকে দিয়ে শর্ট বল নীতি গ্রহণ করেন রুট। তৃতীয় দিনের শেষে মাঠ ছাড়ার সময়ও অ্যান্ডারসন কোহলিকে বাক্য বিনিময় করতে দেখা যায়।

তার রেশ লং রুমেও চলতে থাকে। দুই দলের অধিনায়ক কোহলি ও জো রুট লং রুমেই তীব্র ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। অবশেষে তাঁদের আলাদা করা গেলেও বাকি সময় পুরো ম্যাচ জুড়েই বারংবার দুই দলের ক্রিকেটারদের বাক্য বিনিময়ে জড়াতে দেখা যায়। কোহলি স্বীকারও করে নেন, এতে ভারতীয় দলের ম্যাচ জেতার জেদ আরও বেড়ে যায়। তবে কি কথা হয়েছিল, সে বিষয়ে তিনি কোন খোলসা করেননি। বুধবার (২৫ অগস্ট) থেকে তৃতীয় টেস্টে হেডিংলেতে মাঠে নামবে দুই দল। এই ম্যাচেও এমন ছবি চোখে পড়ে কিনা, এখন সেটাই দেখার।

বন্ধ করুন