বাংলা নিউজ > ময়দান > ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আছড়ে পড়ল ম্যান ইউ সমর্থকদের ক্ষোভের আগুন, ভেস্তে গেল ম্যাচ
ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যান ইউ সমর্থকদের বিক্ষোভ।
ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যান ইউ সমর্থকদের বিক্ষোভ।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আছড়ে পড়ল ম্যান ইউ সমর্থকদের ক্ষোভের আগুন, ভেস্তে গেল ম্যাচ

  • ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের মালিক জোয়েল এবং আভরাম গ্লেজারের সঙ্গে সমর্থকদের মনোমালিন্য কোনও নতুন ঘটনা নয়। এর আগেও সমর্থকেরা তীব্র ভাবে বিক্ষোভ জানিয়েছেন।

ফুটবল মাঠে ঝামেলা কোনও নতুন ঘটনা নয়। ঝামেলার জেরে বহু ম্যাচও ভেস্তে গিয়েছে, এমন ঘটনাও নতুন নয়। তবে ম্যাচ শুরুর আগেই দর্শকের বিক্ষোভের জেরে ম্যাচ ভেস্তে গিয়েছে, এমন উদাহরণ ফুটবল ইতিহাসে খুঁজে পাওয়া কঠিন। তবে এমন ঘটনাই ঘটেছে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। সমর্থকদের তীব্র বিক্ষোভের জেরে ভেস্তে গিয়েছে প্রিমিয়ার লিগের ডার্বি বলে পরিচিত ম্যঞ্চেস্টার ইউনাইটেড-লিভারপুল ম্যাচ।

আসলে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের মালিক জোয়েল এবং আভরাম গ্লেজারের সঙ্গে সমর্থকদের মনোমালিন্য কোনও নতুন ঘটনা নয়। এর আগেও সমর্থকেরা তীব্র ভাবে বিক্ষোভ জানিয়েছেন। তবে রবিবার ম্যান ইউ-লিভারপুল মুখোমুখি হওয়ার আগে যে রকম ভাবে বিক্ষোভের ঢেউ আছড়ে পড়েছে, সে রকমটা আগে কখনও হয়নি।

রবিবার ম্যাচের আগেই ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের মাঠে ঢুকে পড়ে প্রায় দু'শোর উপর দর্শক। ক্লাবের মালিকদের অপসারণের দাবিতে ব্যানার ও আতসবাজি নিয়ে তাঁরা মাঠে ঢুকেছিলেন। ব্যানারের কোনওটায় লেখা, ‘জোয়েল, আভরাম শুনে নাও, এই ক্লাব আমাদের, তোমাদের নয়।’ কোনওটায় আবার লেখা, ‘ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের ভক্তদের আবেগ নিয়ে ছেলেখেলা করার কোনও অধিকারর কারও নেই।’

পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে চায়। কিন্তু তাতে ঝামেলা আরও তীব্র আকার নেয়। কার্যত অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে।  পরে পুলিশ সমর্থকদের মাঠ থেকে বের করে দিলে, তাঁরা টিম হোটেলের সামনে গিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এমন কী ম্যান ইউয়ের টিম বাস আটকে ফুটবলারদের অনুরোধ জানান, তাঁরাও যেন ক্লাবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হন। যাতে ক্লাবটাকে বাঁচানো যায়। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটাই বাতিল করে দিতে বাধ্য হয় এফএ।

পরে ম্যান ইউয়ের তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, ‘পুলিশ, প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ, ক্লাব এবং ওল্ড ট্র্যাফোর্ড কাউন্সিল আলোচনা করে নিরাপত্তার কারণে লিভারপুল-ম্যান ইউ ম্যাচটি স্থগিত করছে। আলোচনা করে নতুন সূচি চূড়ান্ত করা হবে।’ পাশাপাশি পুরো ঘটনাটা সামলানোর জন্য পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলা হয়েছে, ‘ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড সব সময়ে সমর্থকদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকে স্বাগত জানাবে।’

বন্ধ করুন