বাংলা নিউজ > ময়দান > ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ: দুই ক্রিকেটারকে ৮ বছরের নির্বাসনের শাস্তি দিল আইসিসি
মহম্মদ নাভিদকে ৮ বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছে। ছবি গেটি ইমেজ
মহম্মদ নাভিদকে ৮ বছরের জন্য নির্বাসিত করা হয়েছে। ছবি গেটি ইমেজ

ম্যাচ গড়াপেটার অভিযোগ: দুই ক্রিকেটারকে ৮ বছরের নির্বাসনের শাস্তি দিল আইসিসি

  • ম্যাচ গড়াপেটায় যুক্ত থাকার কারণে বড় শাস্তির মুখে পড়তে হল সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর দুই ক্রিকেটারকে। ৮ বছরের নির্বাসনের শাস্তি দেওয়া হয়েছে মহম্মদ নাভিদ এবং শাইমন আনোয়ার বাটকে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফের ম্যাচ গড়াপেটার কালো ছাড়া। এ বার কাঠগড়ায় সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর দুই ক্রিকেটার। ২০১৯ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে মহম্মদ নাভিদ এবং শাইমন আনোয়ার বাট ম্যাচ গড়াপেটা করেছে বলে অভিযোগ ওঠে। তাঁরা দোষী প্রমাণিত হওয়ার পরই, এই দুই ক্রিকেটারকে ৮ বছরের জন্য সব ধরণের ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত করল আইসিসি।

যদিও ২০১৯ সালের ১৬ অক্টোবর অভিযুক্তদের প্রাথমিক ভাবে সাসপেন্ড করা হয়েছিল। পরে আইসিসি-র দুর্নীতি দমন শাখায় সেই অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ার পর বড় শাস্তির মুখে পড়তে হল নাভিদ এবং বাটকে। তবে এই দুই ক্রিকেটারের ক্যারিয়ার কার্যত শেষের দিকেই। ৩৩ বছরের নাভিদ সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর প্রাক্তন অধিনায়ক। পাশাপাশি তিনি দেশের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেটও সংগ্রহ করেছেন। দেশের হয়ে এই ডানহাতি পেসার ৩৯টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ ও ৩১টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। অন্যদিকে ৪২ বছরের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান শাইমন বাট ৪০টি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার পাশাপাশি ৩২টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন।

২০১৯ সালের বিশ্বকাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বের ম্যাচ ছাড়াও নাভিদ টি-টেন টুর্নামেন্টেও গড়াপেটার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। সেই নিয়ে তদন্ত করে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর ক্রিকেট বোর্ডের দুর্নীতিদমন শাখা।  সেখানেও তিনি দোষী সাব্যস্ত হন। এ দিকে আইসিসি-র কাছেও লিখিত এবং মৌখিক ভাবে জবাবদিহি দেওয়ার পরও শাস্তির হাত থেকে রেহাই পাননি না সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর এই দুই ক্রিকেটার। আইসিসি-র জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল এক বিবৃতিতে লিখেছেন, ‘নিরপেক্ষ ট্রাইব্যুনাল ঘটনার তদন্তের পর যে শাস্তির বিধান দিয়েছে তাতে ভবিষ্যতে আর কোনও ক্রিকেটার এমন ভুল পথে পা বাড়ানোর আগে সতর্ক হবেন।’

বন্ধ করুন