বাংলা নিউজ > ময়দান > প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে কোনও বায়ো-বাবল এবং কঠোর কোয়ারেন্টাইন থাকবে না: BCCI
দক্ষিণ আফ্রিকা নিয়ে বড় আপডেট দিলেন বিসিসিআই অফিসিয়াল।

প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে কোনও বায়ো-বাবল এবং কঠোর কোয়ারেন্টাইন থাকবে না: BCCI

  • আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড সফরের পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য কোনও বায়ো-বাবল বা কোয়ারেন্টাইন থাকবে না বলে জানিয়েছেন বিসিসিআই-এর এক কর্তা। তাঁর দাবি, চলতি আইপিএলে টানা দু'মাস বায়ো বাবলে থাকার ফলে ক্লান্ত হয়ে পড়েছে প্লেয়াররা।

বোর্ড অফ কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার একজন সিনিয়র আধিকারিক দাবি করেছেন যে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে আসন্ন পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে প্লেয়ারদের কোয়ারেন্টাইন বা বায়ো-বাবলে থাকার প্রয়োজন হবে না। বিশ্ব জুড়ে করোনা অতিমারী ছড়িয়ে পরার পর থেকেই সব প্লেয়ারের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই বায়ো-বাবলে রাখার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এটি প্লেয়ারদের মানসিক স্বাস্থ্যের উপর অত্যন্ত প্রভাব ফেলেছে এবং এর জন্য বহু খেলোয়াড়ই কয়েকটি সিরিজ থেকে সরে দাঁড়াতেও বাধ্য হয়েছিল।

দেশে কোভিডের জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় কারণে ২০২০ আইপিএল এবং ২০২১ আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বের খেলা সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে স্থানান্তরিত করতে হয়েছিল। তবে বর্তমান পরিস্থিতি অনেক ভালো। চলতি আইপিএল বেশ রমরম করেই ভারতে হচ্ছে। এমন কী এই টুর্নামেন্ট দেখার জন্য স্টেডিয়ামে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু খেলোয়াড়দের বায়ো-বাবলেই থাকতে হচ্ছে। তবে কোয়ারেন্টাইন দিনের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য ভাবে কমে এসেছে। এবং খেলোয়াড়দের জন্যও বিধিনিষেধগুলি ধীরে ধীরে সহজ হতে শুরু করেছে।

আরও পড়ুন: ফের মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি করেই BCCI-এর শাস্তির মুখে লোকেশ রাহুল

বিসিসিআই-এর সেই কর্মকর্তা এ কথাও জানিয়েছেন, আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ড সফরের পাশাপাশি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে আসন্ন টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য কোনও বায়ো-বাবল বা কোয়ারেন্টাইন থাকবে না। তিনি ব্যাখ্যা করেছেন, কী ভাবে প্লেয়াররা চলতি আইপিএলে টানা দু'মাস বায়ো বাবলে থাকার ফলে ক্লান্ত হয়ে পড়েছে। আইপিএল শেষ হওয়ার পরে ৯ জুন ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু হবে।

দ্য নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বিসিসিআইয়ের সিনিয়র কর্মকর্তার বক্তব্য তুলে ধরেছে। সেখানে সেই কর্মকর্তা বলেছেন, ‘যদি সব কিছু ঠিকঠাক থাকে এবং এখনকার মতো জিনিসগুলি নিয়ন্ত্রণে থাকে তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হোম সিরিজের সময় কোনও বায়ো-বাবল এবং কঠিন কোয়ারেন্টাইন থাকবে না।’

এর সঙ্গেই তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘আমরা আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডে যাচ্ছি। সেখানেও কোনও বায়ো-বাবল থাকবে না। কিছু প্লেয়ার ধাপে ধাপে বিরতিতে ছিলেন। কিন্তু বিষয়টি যদি বড় ভাবে দেখা যায়, তবে বায়ো-বাবলে থেকে একের পর এক সিরিজ এবং এখন আইপিএলের দু'মাস প্লেয়ারদের কাছে ক্লান্তিকর হয়ে উঠেছে।’

বন্ধ করুন