বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > 'হার-জিত জীবনের অঙ্গ', হতাশা থেকে মনপ্রীতদের টেনে তোলার চেষ্টা প্রধানমন্ত্রী মোদীর
সেমিফাইনালে হারের পর হতাশ ভারতীয় তারকারা। ছবি- রয়টার্স (REUTERS)
সেমিফাইনালে হারের পর হতাশ ভারতীয় তারকারা। ছবি- রয়টার্স (REUTERS)

'হার-জিত জীবনের অঙ্গ', হতাশা থেকে মনপ্রীতদের টেনে তোলার চেষ্টা প্রধানমন্ত্রী মোদীর

  • ভারতীয় হকি দলের খেলায় গর্বিত, জানালেন প্রধানমন্ত্রী।

'জিত এবং হার জীবনের অঙ্গ।' ঠিক এই ভাষাতেই সেমিফাইনালে হেরে যাওয়া ভারতীয় হকি দলকে হতাশা থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সঙ্গে ব্রোঞ্জ ম্যাচের জন্য আগাম শুভকামনাও জানালেন প্রধানমন্ত্রী।

সেমিফাইনাল শুরুর ঠিক পরেই নরেন্দ্র মোদী টুইট করে জানান যে, তিনি ভারত-বেলজিয়াম ম্যাচ দেখছেন। তিনি এও জানিয়েছিলেন, ভারতীয় দলের স্কিলে তিনি মুগ্ধ। সুতরাং, এটা বুঝতে অসুবিধা হয় না যে, শুরু থেকেই প্রধানমন্ত্রীর নজর ছিল মনপ্রীতদের খেলায়।

(টোকিও অলিম্পিক্স ২০২০-র যাবতীয় খবর, আপডেটের জন্য চোখ রাখুন হিন্দুস্তান টাইমস বাংলায়)

ভারত সেমিফাইনালে ২-৫ গোলে পরাজিত হওয়ার পর মোদী পুনরায় টুইট করেন। তিনি লেখেন, ‘জিত এবং হার জীবনের অঙ্গ। টোকিও অলিম্পিক্সে আমাদের ছেলেদের হকি দল নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দিয়েছে এবং সেটাই বড় বিষয়। পরের ম্যাচ এবং ভবিষ্যতের যাত্রাপথের জন্য তোমাদের শুভেচ্ছা রইল। ভারত তার খেলোয়াড়দের নিয়ে গর্বিত।’

উল্লেখ্য, আগাগোড়া লড়াই চালিয়েও বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে টোকিও অলিম্পিক্সের ছেলেদের হকির সেমিফাইনালে হার মানতে হয় ভারতকে। প্রথম কোয়ার্টারে ভারত ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল। হাফ-টাইমে ম্যাচ ২-২ গোলের সমতায় দাঁড়িয়েছিল। এমনকি তৃতীয় কোয়ার্টারের শেষেও স্কোর-লাইন ছিল ২-২। শেষ কোয়ার্টারে ভারত ৩টি গোল খেয়ে বসে। ফলে ২-৫ গোলে হার মানতে হয় মনপ্রীতদের। সেমিফাইনালে পরাজিত হওয়ার পর ভারত ব্রোঞ্জ পদকের লড়াইয়ে মাঠে নামবে।

বন্ধ করুন