বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy: যে দলই হোক, কোচ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত মানেই রঞ্জিতে সাফল্য পাকা

Ranji Trophy: যে দলই হোক, কোচ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত মানেই রঞ্জিতে সাফল্য পাকা

মধ্যপ্রদেশকে রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন করে আবেগতাড়িত কোচ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত। ছবি- টুইটার।

কোচ হিসাবে ষষ্ঠবার রঞ্জি জিতলেন চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত।

রঞ্জি ট্রফি ২০২১-২২-র ফাইনালে মুম্বইকে হারিয়ে খেতাব নিজেদের নামে করেছে মধ্যপ্রদেশ। ৪১ বারের রেকর্ড চ্যাম্পিয়নের বিরুদ্ধে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান মাত্র চার উইকেট হারিয়েই তুলে নেয় মধ্যপ্রদেশ। এই জয়ের পরেই মাঠে আবেগতাড়িত হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন দলের কোচ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত।

রূপকথা হয়তো একেই বলে। ২৩ বছর আগে এই চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামেই কর্ণাটকের বিরুদ্ধে হেরে কান্নায় মাঠ ছেড়েছিলেন তৎকালীন মধ্যপ্রদেশ কোচ চন্দ্রকান্ত পণ্ডিত। সেই একই মাঠে দুই দশকেরও বেশি সময় পরে আবারও চোখে জল পণ্ডিতের। তবে এবার খুশির জল। নিজের দলের কোচিং করিয়ে প্রথমবার রঞ্জি জয়ের আবেগটা স্বাভাবিকভাবেই আলাদা। তবে মধ্যপ্রদেশকে প্রথমবার রঞ্জি জেতালেও, পণ্ডিত কিন্তু পোড়খাওয়া কোচ। যে দলেরই দায়িত্ব নিয়েছেন, সেই দলের হয়েই সোনা ফলিয়েছেন তিনি।

 আরও পড়ুন:- রঞ্জিতে ইতিহাস, মুম্বইকে হারিয়ে প্রথম বার চ্যাম্পিয়ন মধ্যপ্রদেশ

আরও পড়ুন:- 'বাবা পারেননি, ছেলে করে দেখাল', ২৩ বছর আগের আক্ষেপ মিটল চন্দ্রকান্ত পণ্ডিতের

২০০২-০৩ সালে প্রথমবার কোচ হিসাবে মুম্বইয়ের সঙ্গে রঞ্জি জেতেন পণ্ডিত। তৎকালীন মুম্বই দলের অধিনায়ক ছিলেন পরশ মামরে। তার পরের মরশুমে সাইরাজ বাহুতুলের নেতৃত্বে আবারও রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন হয় পণ্ডিতের কোচিং করানো মুম্বই। ২০১৫-১৬ আবারও মুম্বইকে রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন করান তিনি। এরপর এক মরশুম পর বিদর্ভকে ২০১৬-১৭ ও ১৭-১৮, পরপর দুই মরশুমে কোচিং করিয়ে চ্যাম্পিয়ন করেন পণ্ডিত। এই নিয়ে ষষ্ঠবার কোচ হিসাবে তাঁর রঞ্জি জয়। নিঃসন্দেহে তিনি যে রঞ্জির ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম সেরা কোচ, সেই নিয়ে কোনও সন্দেহের অবকাশ থাকতে পারে না।  

 

বন্ধ করুন