বাংলা নিউজ > ময়দান > ৫০ ওভারের ODI বিরক্তিকর! আফ্রিদির মতোই ৪০ ওভারের পক্ষে সওয়াল শাস্ত্রী
রবি শাস্ত্রী ও শাহিদ আফ্রিদি

৫০ ওভারের ODI বিরক্তিকর! আফ্রিদির মতোই ৪০ ওভারের পক্ষে সওয়াল শাস্ত্রী

  • সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপজয়ী পাক অলরাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদি দাবি করেছিলেন ৫০ ওভারের বদলে ৪০ ওভারে খেলা হোক ওয়ানডে। কার্যত সেই দাবির পাশে দাঁড়িয়ে বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারতীয় তারকা রবি শাস্ত্রী জানিয়ে দিলেন ৪০ ওভারের ক্রিকেটের হাত ধরেই বাঁচতে পারে ওয়ানডে ফর্ম্যাট।

শুভব্রত মুখার্জি: ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে ইংল্যান্ডের তারকা অলরাউন্ডার বেন স্টোকস অবসর ঘোষণার পর থেকেই নানা প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে ক্রিকেটারদের কেরিয়ার, এই ফর্ম্যাট আদৌ ভবিষ্যতে থাকবে কিনা তা নিয়েও। এমন আবহে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞদের মতামতও বিভিন্ন। সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপজয়ী পাক অলরাউন্ডার শাহিদ আফ্রিদি দাবি করেছিলেন ৫০ ওভারের বদলে ৪০ ওভারে খেলা হোক ওয়ানডে। কার্যত সেই দাবির পাশে দাঁড়িয়ে বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারতীয় তারকা রবি শাস্ত্রী জানিয়ে দিলেন ৪০ ওভারের ক্রিকেটের হাত ধরেই বাঁচতে পারে ওয়ানডে ফর্ম্যাট।

আরও পড়ুন: গোয়েঙ্কাদের ডারবান ফ্রাঞ্চাইজির নয়া কোচ হিসেবে দায়িত্ব পেলেন ল্যান্স ক্লুজনার

টি-২০'র জমানাতে জৌলুস হারাচ্ছে ওয়ানডে ক্রিকেট। ফলে ৫০ ওভারের ক্রিকেটের ভবিষ্যত নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ একাধিক প্রাক্তন ও বর্তমান ক্রিকেটার। তবে এই সংস্করণকে বাঁচাতে কয়েকদিন আগেই ৪০ ওভারের ওয়ানডে খেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন শহিদ আফ্রিদি। পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়কের সঙ্গে সুর মিলিয়ে শাস্ত্রীর দাবি ওয়ানডে খেলা হোক ৫০-এর বদলে ৪০ ওভারে।

ফ্যানকোডের সঙ্গে আলাপচারিতায় ভারতের প্রাক্তন প্রধান কোচ বলেন, ‘ওয়ানডে ক্রিকেট এখন কিছুটা হলেও বিরক্তিকর হয়ে ‍উঠেছে। ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিনোদনমূলক করার জন্য আমি ৫০ থেকে ৪০ ওভারে নামিয়ে আনার পরামর্শ দেব। শুরুর সময়তো ওয়ানডে ক্রিকেট ৬০ ওভারে খেলা হত‌। পরবর্তীতে সেটি কমিয়ে করা হয় ৫০ ওভারে। খেলাটির ওভারের ব্যাপ্তি কমালেও কোনও ক্ষতি হবে না।'

তিনি আরও যোগ করেন '১৯৮৩ সালে যখন আমরা বিশ্বকাপ জিতেছিলাম, তখন সেটি ছিল ৬০ ওভারের। এরপরে সবাই ভেবেছিল যে ৬০ ওভার একটু বেশি দীর্ঘ। তাই তারা এটি ৬০ থেকে কমিয়ে ৫০ করেছিল। সেই সিদ্ধান্তের পর থেকে এখন অনেক বছর কেটে গেছে। তাই এখন কেন এটি ৫০ থেকে কমিয়ে ৪০ করা যেতেই পারে।'

বন্ধ করুন