সৃঞ্জয় বসু। ফাইল ছবি
সৃঞ্জয় বসু। ফাইল ছবি

ATK-র সঙ্গে বিলয়ের পর মোহনবাগান সচিবের গুরুদায়িত্ব বর্তাল সৃঞ্জয় বসুর ঘাড়ে

  • পরিচালন কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে ক্লাবের পরবর্তী সভাপতি হচ্ছেন টুটু বসু। গীতানাথ গঙ্গোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে পদটি খালি হয়েছিল।

ডার্বিতে ইস্টবেঙ্গলকে কুপোকাত করার পর দিনই বড় সিদ্ধান্ত মোহনবাগান তাঁবুতে। ক্লাবের পরবর্তী সচিব হচ্ছেন সৃঞ্জয় (টুম্পাই) বসু। সোমবার ক্লাবের পরিচালন সমিতির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। ফলে ATK-র সঙ্গে মোহনবাগানের বিলয়ের যাবতীয় গুরুদায়িত্ব সামলাতে হবে টুম্পাইবাবুকেই।

পরিচালন কমিটির সিদ্ধান্ত অনুসারে ক্লাবের পরবর্তী সভাপতি হচ্ছেন টুটু বসু। গীতানাথ গঙ্গোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে পদটি খালি হয়েছিল। টুম্পাইবাবু এতদিন সহ-সচিবের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন। টুটু বসু ছিলেন সচিব। টুম্পাইবাবুর খালি হওয়া আসনে বসছেন সত্যজিৎ চট্টোপাধ্যায়।

গত সপ্তাহেই মোহনবাগানের সঙ্গে ATK-র বিলয় ঘোষণা করেছে দুই পক্ষ। এর ফলে ক্লাবের ৮০ শতাংশ শেয়ার চলে গিয়েছে ATK-র মালিকদের কাছে। এই অবস্থায় দল পরিচালনায় ক্লাবের কর্মকর্তাদের ঠিক কী ভূমিকা থাকবে তা স্পষ্ট নয়। চুক্তি অনুসারে মোহনবাগাব ক্লাবের লোগো ও জার্সি অপরিবর্তিত থাকছে। বাকি দল পরিচালনার পুরোটাই চলে যেতে পারে ATK কর্তাদের হাতে। সেক্ষেত্রে ঢাল তলোয়ারহীন নিধিরাম সর্দার হয়ে যেতে পারেন টুম্পাইবাবুরা।

দুই ক্লাবের বিলয় ঘোষণায় যে বিবৃতি জারি করা হয় তাতে অবশ্য সাবধানী ছিলেন ATK-র অন্যতম মালিক ও গোয়েঙ্কা গোষ্ঠীর প্রধান সঞ্জীব গোয়েঙ্কা। তিনি বলেন, ২০০ পুরনো এই গোষ্ঠী বহু ঐতিহ্যবাহী সংস্থাকে পুনরুজ্জীবিত করেছে। মোহনবাগানকে নিয়েও পুরোপুরি আশাবাদী তারা।

বন্ধ করুন