বাংলা নিউজ > ময়দান > Thomas Cup: ব্যথাকে তুচ্ছ করে দুর্দান্ত লড়াই, ঐতিহাসিক সেমি চলাকালীন কী ভাবছিলেন প্রণয়?
ভারতীয় শাটলার এইচএস প্রণয়। ছবি- এপি। (AP)
ভারতীয় শাটলার এইচএস প্রণয়। ছবি- এপি। (AP)

Thomas Cup: ব্যথাকে তুচ্ছ করে দুর্দান্ত লড়াই, ঐতিহাসিক সেমি চলাকালীন কী ভাবছিলেন প্রণয়?

  • উভয় দলই দুইটি করে ম্য়াচ জেতার পর, পিছিয়ে গিয়েও নির্ণায়ক ম্যাচ জিতে ফাইনালে ভারতের জায়গা পাকা করেন প্রণয়।

চলতি থমাস কাপে ভারতীয় পুরুষ ব্যাডমিন্টন দল ইতিহাস রচনা করেছে। ডেনমার্ককে হারিয়ে প্রথমবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠেছে ভারত। তবে এই জয় এইচএস প্রণয়কে ছাড়া সম্ভব হত না। উভয় দলই দুইটি করে ম্য়াচ জেতার পর নির্ণায়ক ম্যাচে রাসমাস গেমকেকে হারিয়ে ফাইনালে ভারতের জায়গা পাকা করেন প্রণয়।

থমাস কাপের সেমিতে প্রণয়ের এই জয়ের মাহাত্ম্য অনেকটাই বেশি কারণ তিনি চোট পেয়ে ব্যথা কষ্ট পেলেও নিজের সিঙ্গেলস ম্যাচ শুধু শেষ পর্যন্ত খেলেনইনি, পিছিয়ে পড়েও ১৩-২১, ২১-৯, ২১-১২ স্কোরলাইনে জিতেওছেন। সামনের কোর্টে এক রিটার্ন দেওয়ার সময়ই পা পিছলে পড়ে যান প্রণয়। তবে মেডিক্যাল টাইম আউটের পর তিনি আবার কোর্টে ফেরেন। এই বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে প্রণয় জানান, ‘আমার মাথায় ওই সময় অনেককিছু চলছিল। পা পিছলে যাওয়ার পর থেকেই বেশ যন্ত্রণা করছিল। আমি ঠিক করে নড়াচড়া করতে পারছিলাম না এবং কীভাবে কী করব, তা নিয়ে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিলাম।’

তবে কোনও সময়ই ম্যাচ ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে বিন্দুমাত্র ভাবেননি বল সাফ জানিয়ে দিচ্ছেন প্রণয়। ঐতিহাসিক সেমিফাইনালে তাঁর পরিকল্পনাও ফাঁস করলেন ভারতীয় শাটলার। ‘মনে মনে আমি ঠিক করে নিয়েছিলাম আর যাই হোক ম্যাচ ছাড়ব না। প্রার্থনা করছিলাম যাতে ব্যথাটা কমে এবং দ্বিতীয় গেম থেকে তা কমতে কমতে তৃতীয় গেমের সময় প্রায় সম্পূর্ণ উধাও হয়ে যায়। ওই দুই গেমে আমি বরাবর প্রতিপক্ষের উপর চাপ রাখারই চেষ্টা করছিলাম। জানতাম দ্বিতীয়ার্ধে বেশ বড় লিড নিয়ে শুরু করলে গেম জেতার সুযোগ রয়েছে। তাইদ্রুত যাতে ১১ পয়েন্ট তুলে নিতে পারি, তার চেষ্টায় ছিলাম।’ বলেন প্রণয়। 

বন্ধ করুন