বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মারণ ভাইরাসে প্রাণ হারালেন শিতলকুচির বিডিও, শোক প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

মারণ ভাইরাসে প্রাণ হারালেন শিতলকুচির বিডিও, শোক প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

  • শুক্রবার সকালে প্রয়াত হন কোচবিহারের শিতলকুচির সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক (‌বিডিও) ওয়াংরি গ্যালপো ভুটিয়া। তিনি অন্য অনেকের মতো সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন।

ফের করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারালেন এক সরকারি আধিকারিক। স্বাস্থ্য দফতরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, শুক্রবার সকালে প্রয়াত হন কোচবিহারের শিতলকুচির সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক (‌বিডিও) ওয়াংরি গ্যালপো ভুটিয়া। তিনি অন্য অনেকের মতো সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। তাঁকে এদিন করোনাযোদ্ধা হিসেবে অভিহিত করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

প্রয়াত আধিকারিকের কর্মনিষ্ঠাকে কুর্নিশ জানিয়ে তাঁর স্ত্রী সোনম সোমা ভুটিয়াকে এদিন চিঠি লিখে শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাতে তিনি লিখেছেন, ‘‌আপনার স্বামী ডব্লুবিসিএস অফিসার ওয়াংরি গ্যালপো ভুটিয়ার অকালমৃত্যুতে আমি গভীরভাবে শোকাহত। আমাদের অনেক সাহসী অফিসারদের মতো তিনি করোনাযুদ্ধে সামনে সারিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করেছেন। তিনি শুধু তাঁর সহকর্মী নয়, আমাদের সকলের কাছে একজন অনুপ্রেরণা। আমি তাঁর সাহস এবং কাজের প্রতি দৃঢ় সংকল্পকে কুর্নিশ জানাই।’‌

রাজ্য সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, প্রয়াত ওয়াংরি গ্যালপো ভুটিয়ার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়ে সবরকম সহায়তা প্রদান করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ রাজ্য সরকার। এই কঠিন সময়ে তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীও। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই দেবদত্তা রায় নামে রাজ্য প্রশাসনের আর এক আধিকারিক মারণ ভাইরাসের কবলে পড়ে প্রাণ হারান। বিগত কয়েক মাস ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় ১৪ জন সরকারি আধিকারিকের মৃত্যু হয়েছে।

বন্ধ করুন