বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দল বললে চলে যাব:‌ দলীয় নির্দেশ না মেনে সভা করে ঘোষণা করলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি
জিতেন্দ্র তিওয়ারি। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
জিতেন্দ্র তিওয়ারি। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

দল বললে চলে যাব:‌ দলীয় নির্দেশ না মেনে সভা করে ঘোষণা করলেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি

  • এদিনের সভায় তিনি পরিষ্কার বলেন, ‘‌পশ্চিম বর্ধমানের জেলা নেতাদের এভাবে আর ভয় দেখিয়ে রাখা যাবে না। মানুষকে যে স্বপ্ন আমরা দেখিয়েছিলাম, যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তা আজ পূরণ করতে দেওয়া হচ্ছে না।’‌

দলীয় নির্দেশ অমান্য করে বুধবা‌র দুর্গাপুরে গ্রাফাইট ইন্ডিয়া লিমিটেডের মেন গেটে প্রকাশ্যে সভা করলেন আসানসোলের বিদায়ী মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি। তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আয়োজিত এদিনের সভায় তিনি রীতিমতো হুঙ্কার দিয়ে বলেন, ‘‌পশ্চিম বর্ধমানের জেলা নেতাদের এভাবে আর ভয় দেখিয়ে রাখা যাবে না।’‌ ‘‌বেসুরো’‌ জিতেন্দ্র নিজের রাজনৈতিক অবস্থান আরও পরিষ্কার করে জানান, ‘‌দল বললে চলে যাব।’‌

দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে কলকাতার তৃণমূল নেতৃত্বের কাছ থেকে জিতেন্দ্র তিওয়ারির কাছে মেসেজ আসে। তাঁকে সেই মেসেজে জানানো হয়, ১৮ ডিসেম্বর তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করার আগে পর্যন্ত কোনও দলীয় সভায় তিনি যোগ দিতে পারবেন না। সেই নির্দেশকে অমান্য করে দলীয় অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন জিতেন্দ্র। তিনি ওই সভায় এটাও বলেছেন যে, ‘‌আজ এই দলীয় অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য হয়তো আমাকে আসানসোল পুরসভার প্রশাসক পদ ছাড়তে হবে।’‌

সম্প্রতি আসানসোলকে স্মার্ট সিটিতে রূপান্তরিত করতে দলীয় বাধার অভিযোগ তুলে ফিরহাদ হাকিমকে চিঠি দেন জিতেন্দ্র। আর সেই চিঠি প্রকাশ্যে আসার পরই দলের প্রতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি ক্ষোভ বাড়তে থাকে। এদিনের সভায় তিনি পরিষ্কার বলেন, ‘‌পশ্চিম বর্ধমানের জেলা নেতাদের এভাবে আর ভয় দেখিয়ে রাখা যাবে না। মানুষকে যে স্বপ্ন আমরা দেখিয়েছিলাম, যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম তা আজ পূরণ করতে দেওয়া হচ্ছে না। যদি কেউ অধিকারের কথা বলে তা হলে চলে যেতে হবে। প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে সচেষ্ট হলেই চলে যেতে হবে। আর কতদিন এভাবে ভয়ে ভয়ে থাকব। এক না এক সময় তো সিদ্ধান্ত নিতেই হবে। এখন সিদ্ধান্ত নিয়েছি, বললে চলে যাব। কিন্তু মানুষের সঙ্গেই থাকব।’‌

বন্ধ করুন