বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বাটির মতো হাবরা, জলে নামলেন খোদ মন্ত্রী, বেআইনী নির্মাণ ভাঙার নির্দেশ
জলে নামলেন মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক
জলে নামলেন মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক

বাটির মতো হাবরা, জলে নামলেন খোদ মন্ত্রী, বেআইনী নির্মাণ ভাঙার নির্দেশ

  • গতবারও হাবরার জল বের করে দিয়েছিলাম। কিন্তু অশোকনগরের জলও পড়ছে এখানে। সেই জলও বের করতে হচ্ছে। নদিয়ার জলও এখানে চলে আসছে। জানালেন মন্ত্রী

দিনের পর দিন ধরে নোংরা, পচা. দুর্গন্ধময় জল জমে রয়েছে এলাকায়। সেই জলের উপর দিয়েই নিত্য যাতায়াত বাসিন্দাদের। এবার সেই জলে নেমেই নিকাশির পরিস্থিতি খতিয়ে দেখলেন মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। রবিবার তিনি হাবরা পুরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে যান। সেখানে সর্দারপাড়া কামিনীকুমার স্কুল সংলগ্ন এলাকা যেখানে জল বের হতে সমস্যা তৈরি হচ্ছে, সেই এলাকা ঘুরে দেখেন। দিনের পর দিন জল জমে থাকার এই সমস্যার কথা স্থানীয় বাসিন্দারাও মন্ত্রীকে জানান। মন্ত্রী বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার অতিবৃষ্টিটা বেশি হয়েছে। পুজোর পরেও বৃষ্টি হয়েছে। গতবারও হাবরার জল বের করে দিয়েছিলাম। কিন্তু অশোকনগরের জলও পড়ছে এখানে। সেই জলও বের করতে হচ্ছে। নদিয়ার জলও এখানে চলে আসছে। একেবারে বাটির মতো অবস্থা। জল বের করার জন্য একটাই মাত্র জায়গা। আমাদের যাতে ২৫ কোটি টাকা মঞ্জুর হয়েছে নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতির জন্য। এজন্য়ও জায়গাও কেনা হয়েছে। 

মন্ত্রী বলেন, ১৫দিন আর সময় দিতে হবে। দশটা পাম্পও কাজে লাগানো হচ্ছে। আশা করছি সাত থেকে ১০দিনের মধ্যে জল বের হবে। তাও আবার পদ্মা ক্যানেলের কিছুটা বুজিয়ে দিয়েছে। ১২টা বেআইনী নির্মাণ ভাঙার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। ওই ১২টা জায়গাতেই বেআইনী নির্মাণ ভেঙে দেব। জল জমা নিয়ে আমি ক্ষমাপ্রার্থী। কিন্তু আগামী বছর থেকে আর এই সমস্যাটা দেখা দেবে না। দুমাসের মধ্যে পাম্পিং স্টেশন করে দেব।

 

বন্ধ করুন