বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Purulia: বিছানায় শুয়েছিল আড়াই মাসের ফুটফুটে শিশু, রাগে আছাড় মারলেন বাবা
শিশু সন্তানকে খুনের অভিযোগ বাবার বিরুদ্ধে উঠেছে । প্রতীকী ছবি।

Purulia: বিছানায় শুয়েছিল আড়াই মাসের ফুটফুটে শিশু, রাগে আছাড় মারলেন বাবা

  • বিছানায় শুয়ে ছিল নেহারি ও সাগরের সন্তান। মামার বাড়ি যাবে বলে নতুন জামাও পরেছিল। আচমকাই সাগর সেই শিশুকে তুলে আছাড় মারে বলে অভিযোগ।

শিউরে ওঠার মতোই ঘটনা। দাম্পত্য কলহের জের। আড়াই মাসের শিশুপুত্রকে তুলে ধরে আছাড় মারলেন বাবা। পুরুলিয়ার টামনা থানা এলাকার ঘটনা। রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় ওই শিশুটিকে পুরুলিয়ার দেবেন মাহাতো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। কিন্তু কেন এভাবে শিশু সন্তানকে আছাড় মারলেন বাবা?

স্থানীয় সূত্রে খবর, বছর দেড়েক আগে বলরামপুরের ছোটো গাদো এলাকার বাসিন্দা নেহারি রুইদাসের সঙ্গে টামনা থানা এলাকার ভুরকুর বাসিন্দা সাগর রুইদাসের বিয়ে হয়েছিল। বিয়ের পর থেকে তাদের সংসারে অশান্তি লেগেই থাকত। মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে সাগর মাঝেমধ্যেই নেহারির উপর অত্য়াচার চালাত বলে অভিযোগ।

এদিকে বৃহস্পতিবার নেহারির মা ও ভাই ভুরকু গ্রামে এসেছিল। নাতিকে ও মেয়েকে নিয়ে যেতেন নেহারির মা। কিন্তু সেকথা জেনেই অশান্তি শুরু করে দেন সাগর। বিছানায় শুয়ে ছিল নেহারি ও সাগরের সন্তান। মামার বাড়ি যাবে বলে নতুন জামাও পরেছিল। আচমকাই সাগর সেই শিশুকে তুলে আছাড় মারে বলে অভিযোগ। 

কান্নায় ককিয়ে ওঠে শিশুটি। এরপর একসময় কান্নার আওয়াজও থেমে যায়। নিথর হয়ে যায় শিশুর দেহ। এদিকে ততক্ষণে গা ঢাকা দিয়েছে সাগর। গোটা ঘটনায় এলাকায় শোরগোল পড়ে যায়। বাসিন্দাদের দাবি, স্ত্রীর উপর রাগ ছিল সাগরের। কিন্তু সেই রাগে কেন এভাবে শিশুকে নৃশংসভাবে সে খুন করল? নেহারি স্বামীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। শিশুর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। 

বন্ধ করুন