বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তপন কান্দু খুনে সিটের তদন্তেই কার্যত শিলমোহর CBI-এর
নিহত কংগ্রেস কাউন্সিলর তপন কান্দু।

তপন কান্দু খুনে সিটের তদন্তেই কার্যত শিলমোহর CBI-এর

  • গত ১৩ জুন সন্ধ্যায় পুরুল্যার ঝালদায় খুন হন ২ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কংগ্রেস প্রার্থী তপন কান্দু। পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়, ঝালদা পুরসভা তৃণমূলের দখলে নিতে তপনবাবুকে দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলে যোগদানের হুমকি দিচ্ছিলেন ঝালদা পুরসভার আইসি সঞ্জীব ঘোষ।

তপন কান্দু খুনের চার্জশিটে কার্যত সিআইডির তত্ত্বতেই শিলমোহর দিল সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা জানিয়েছে, রাজনৈতিক নয়, পারিবারিক কারণেই খুন হয়েছেন তপন কান্দু। এমনকী ঝালদা থানার আইসি সঞ্জীব ঘোষের সম্পর্কে একটা অক্ষরও লেখা নেই সেই চার্জশিটে। তপন কান্দুর স্ত্রী পূর্ণিমা কান্দু জানিয়েছেন, চার্জশিট তিনি দেখেননি। তবে সিবিআইয়ের ওপরে আস্থা রয়েছে।

তপন কান্দুর পরিবারের আইনজীবী নন্দলাল সিনহানিয়া জানিয়েছেন, ১৩ জুন আদালতে যে চার্জশিট সিবিআই পেশ করেছে তাতে খুনের কারণ হিসাবে পারিবারিক বিবাদের দিকে ইঙ্গিত রয়েছে। দাদা নরেন কান্দুর সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক ও পারিবারিক বিবাদ চলছিল তপন কান্দুর। সেই রেশারেশির জেরে সুপারি কিলার দিয়ে খুন করা হয়েছে তপন কান্দুকে। চার্জশিটে ভোটের ফল নিয়ে ২ ভাইয়ের মধ্যে ৫ লক্ষ টাকার যে বাজি হয়েছিল সেকথাও উল্লেখ রয়েছে চার্জশিটে। সিবিআইয়ের তরফে জানানো হয়েছে, এখনো ২ জন সুপারি কিলারকে ধরা বাকি। কলেবর সিংয়ের সঙ্গে গত ১৩ জুন ছিল তারা।

গত ১৩ জুন সন্ধ্যায় পুরুল্যার ঝালদায় খুন হন ২ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কংগ্রেস প্রার্থী তপন কান্দু। পরিবারের তরফে অভিযোগ করা হয়, ঝালদা পুরসভা তৃণমূলের দখলে নিতে তপনবাবুকে দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলে যোগদানের হুমকি দিচ্ছিলেন ঝালদা পুরসভার আইসি সঞ্জীব ঘোষ।

চার্জশিট নিয়ে তপনবাবুর স্ত্রী বলেন, আমি চার্জশিট দেখিনি। তবে পরিবারের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ ঠিক নয়। এখনো অনেকে গ্রেফতার হয়নি। তারা গ্রেফতার হলে মোড় ঘুরে যেতে পারে।

 

 

বন্ধ করুন