বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দাবি না মানলে দলবদলের কথা ভাবতে বাধ্য হব, ফের হুঁশিয়ারি রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের
রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য।
রবিবার সাংবাদিক বৈঠকে রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য।

দাবি না মানলে দলবদলের কথা ভাবতে বাধ্য হব, ফের হুঁশিয়ারি রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্যের

  • সিঙুর আন্দোলনের এই নেতা বলেন, ‘আমার মাথায় দলবদলের ভাবনা এসেছে। দলবদল করার প্রস্তাব রয়েছে। আমি এখন তা পাত্তা দিচ্ছি না।

রবিবারের পর সোমবার, অনুগামীকে দলের ব্লক সভাপতির পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ায় ফের ক্ষোভ উগরে দিলেন তৃণমূল বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। এদিনও তিনি দলবদলের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। পালটা প্রতিক্রিয়ায় তৃণমূলের তরফে জানানো হয়েছে, ‘রবীন্দ্রনাথবাবু একা সৎ, বাকি সবাই অসৎ। এমনটা দাবি করলে ভুল হবে।’

সোমবার একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকারে সিঙুরের মাস্টারমশাই তাঁর অভিযোগ প্রকাশ্যে তুলে ধরে বলেন, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরও বেচারাম আমাকে অসম্মান করেছে। তার লোককে পদে বসিয়ে আমার লোককে সরিয়ে দেওয়া হল।

রবীন্দ্রনাথবাবুর কথায়, ‘কোন কারণে মহাদেব দাসকে এই পদ থেকে অপসারণ করা হল। সে সততার সঙ্গে কাজ করছিল বলে বাকিদের সমস্যা হচ্ছিল?’ 

এদিনও দলবদলের হুঁশিয়ারি দিয়ে সিঙুর আন্দোলনের এই নেতা বলেন, ‘আমার মাথায় দলবদলের ভাবনা এসেছে। দলবদল করার প্রস্তাব রয়েছে। আমি এখন তা পাত্তা দিচ্ছি না। কিন্তু যদি প্রতিকার না হয় তাহলে আমাকে রাজনীতির আসরে থাকতে গেলে চিন্তা করতে হবে দলবদল করব কি না।

রবীন্দ্রনাথবাবুর দাবি, কৃষি প্রতিমন্ত্রী হয়ে বেচারাম মান্না তাঁকে ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেচারামকে আমাকে উপযুক্ত সম্মান দিতে বললেও সে আমাকে আপমান করেছে। 

পালটা তৃণমূলের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, ‘রবীন্দ্রনাথবাবু একা সৎ, বাকি সবাই অসৎ, এটা ভাবা ঠিক নয়। দলে অনেকে রয়েছেন। সিঙুর আন্দোলনে বেচারাম মান্নারও অবদান রয়েছে। নতুন ব্লক কমিটি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুমোদন করেছেন। রদবদল করতে হলে তাঁর অনুমতি প্রয়োজন।’

 

বন্ধ করুন