বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > দমদমে চলছিল ভুয়ো কলসেন্টার, গ্রেফতার ৫, কীভাবে চলত প্রতারণা?

দমদমে চলছিল ভুয়ো কলসেন্টার, গ্রেফতার ৫, কীভাবে চলত প্রতারণা?

নাগেরবাজারে ভুয়ো কলসেন্টার চালানোর অভিযোগ। ছবিটি প্রতীকী (‌সৌজন্য ফেসবুক)‌

কতদিন ধরে এই প্রতারণার ফাঁদ পাতা হচ্ছিল, কতজনের কাছ থেকে কতটাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। তবে শহরের বুকে এভাবে প্রতারণাচক্রের সন্ধানকে ঘিরে স্বাভাবিকভাবেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়

নাগেরবাজারের রাষ্ট্রগুরু অ্যাভিনিউতে একেবারে রমরমিয়ে চালানো হচ্ছিল কলসেন্টার। স্কাইলাইন সলিউশনের নামে চলছিল এই কলসেন্টার। অভিযোগ এমনটাই। মূলত যাদের চটজলদি টাকার প্রয়োজন তাদেরকেই টার্গেট করা হত এই কলসেন্টার থেকে। আর সেখানেই পুজোর মুখে হানা দিল পুলিশ। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। সেখান থেকে ৩ মহিলা সহ ৫জনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ঠিক কী হত এই কলসেন্টারের মাধ্যমে?

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, দ্রুত ঋণ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে টোপ ফেলা হত। মহিলা কণ্ঠে ফোন আসত অনেকের কাছে। এদিকে ঋণ পাইয়ে দেওয়ার নাম করে গ্রাহকের কাছ থেকে টাকা আদায় করা হত। এনিয়ে পুলিশের কাছেও অভিযোগ এসেছিল। এরপরই পুলিশ ফাঁদ পাতে। ওই কলসেন্টারে হানা দিয়ে পুলিশ সিমকার্ড, ল্যাপটপ, ওয়াইফাই ফাইবার সহ নানা ইলেকট্রনিক ডিভাইস বাজেয়াপ্ত করেছে। সেই সামগ্রী দিয়েই প্রতারণার ফাঁদ পাতা হত বলে অভিযোগ।

তবে এই প্রতারণার সঙ্গে আর কেউ যুক্ত কি না তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। কতদিন ধরে এই প্রতারণার ফাঁদ পাতা হচ্ছিল, কতজনের কাছ থেকে কতটাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। তবে শহরের বুকে এভাবে প্রতারণাচক্রের সন্ধানকে ঘিরে স্বাভাবিকভাবেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে এলাকায়

বন্ধ করুন