বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > নারদ মামলায় মন্ত্রী–বিধায়কের সমন এলো বিধানসভায়, তীব্র আপত্তি স্পিকারের
বিধানসভা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।
বিধানসভা। ছবি সৌজন্য–এএনআই।

নারদ মামলায় মন্ত্রী–বিধায়কের সমন এলো বিধানসভায়, তীব্র আপত্তি স্পিকারের

  • নারদ মামলায় অভিযুক্ত রাজ্যের দুই মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও ফিরহাদ হাকিম এবং বিধায়ক মদন মিত্রের নামে সমন জারি করেছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

সমন আসার কথা ছিল। এবার তা এলো রাজ্য বিধানসভায়। নারদ মামলায় অভিযুক্ত তিন বিধায়কের নামে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) রাজ্য বিধানসভায় আদালতের সমন পাঠাল। আর তার পরেই চর্চায় উঠে এলো নারদ মামলা। জানা গিয়েছে, এই মর্মে বিধানসভার পক্ষ থেকে সমনের বিষয়ে নিজেদের ব্যাখ্যা আদালতকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

নারদ মামলায় অভিযুক্ত রাজ্যের দুই মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও ফিরহাদ হাকিম এবং বিধায়ক মদন মিত্রের নামে সমন জারি করেছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত। এমনকী ওই তিনজনের নামে জারি করা সেই সমন বিধানসভার মাধ্যমে তাঁদের কাছে পাঠাতে চেয়েছে আদালত। এই নিয়ে জোর আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আপত্তিও তোলা হয়েছে বিধানসভার পক্ষ থেকে।

এই সমনের চিঠি নিয়ে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বিধানসভার নিয়মবিধিতে দেখেছি, এই সমন পৌঁছে দেওয়া আমাদের দায়িত্ব নয়। আমরা তা করছিও না।’ আর তদন্তকারী সংস্থার আইনজীবী অভিজিৎ ভদ্র বলেন, ‘‌আদালতের নির্দেশে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে উল্লেখ করা জায়গায় সমন পাঠানো হয়েছে। যদি কোনও বিষয়ে আপত্তি ওঠে, তা আদালতকে জানাবেন সংশ্লিষ্ট সংস্থা অথবা ব্যক্তি।’‌

উল্লেখ্য, নারদ মামলায় আগেই চার্জশিট পেশ করেছে সিবিআই। আবার চার্জশিট জমা দিয়েছে ইডিও। দ্বিতীয় চার্জশিট অনুযায়ী, সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত বিধানসভার সদস্য সুব্রত, ফিরহাদ এবং মদনের নামে সমন পাঠিয়েছে। আর প্রাক্তন মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় ও আইপিএস এসএমএইচ মির্জাকে সরাসরি সমন পাঠানো হবে বলে ইডি সূত্রে খবর।

বন্ধ করুন