বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > এবার ডিজিপি নিয়োগ নিয়ে রিপোর্ট তলব রাজ্যপালের, ফের সংঘাত রাজভবন–নবান্ন
জগদীপ ধনখড়। (ফাইল ছবি)
জগদীপ ধনখড়। (ফাইল ছবি)

এবার ডিজিপি নিয়োগ নিয়ে রিপোর্ট তলব রাজ্যপালের, ফের সংঘাত রাজভবন–নবান্ন

  • কোন পদ্ধতি মেনে ডিজিপি নিয়োগ করা হয়েছে? তা জানতে চাইলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীকে ট্যাগ করেছেন টুইটে।

বুধবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে দেখা করেছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে তিনি রাজ্যপালকে সিকিউরিটি কমিশন নিয়ে তথ্য দিয়ে এসেছিলেন। আর বৃহস্পতিবার সরাসরি রাজ্য পুলিশের ডিজি পদে বীরেন্দ্র–কে পুনর্বহাল করা নিয়ে টুইটারে রাজ্য সরকারের কড়া সমালোচনা করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এমনকী ডিজিপি নিয়োগ নিয়ে রিপোর্ট তলব করলেন রাজ্যপাল। কোন পদ্ধতি মেনে ডিজিপি নিয়োগ করা হয়েছে? তা জানতে চাইলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীকে ট্যাগ করেছেন টুইটে। ফলে ফের রাজভবন–নবান্ন সংঘাত জারি হল বলে মনে করা হচ্ছে।

ঠিক কী লিখেছেন রাজ্যপাল?‌ তিনি টুইট করে লেখেন, ‘‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উচিত ভারপ্রাপ্ত কাউকে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ না করে ইউপিএসসি প্যানেলের মধ্যে থেকে একজনকে ডিজিপি পদে নিয়োগ করা। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মানা উচিত রাজ্য সরকারের। ২০১৯ সালের ৬ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আবেদন নাকচ করেছিল সুপ্রিম কোর্ট’। এমনকী সুপ্রিম কোর্টের একটি অর্ডার উল্লেখ করে টুইট করেন তিনি। টুইটে ট্যাগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের রেশ কাটতে না কাটতেই নতুন করে ডিজিপি ইস্যু সামনে নিয়ে আসা হল। আর তা নিয়ে এখন রাজ্য–রাজনীতিতে জোর চর্চা শুরু হয়েছে। কারণ বিধানসভা নির্বাচনের সময় রাজ্যের ডিজি বদলে দিয়েছিল নির্বাচন কমিশন। তখন সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল বীরেন্দ্রকে। তবে হ্যাট্রিক করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষমতায় বসতেই বীরেন্দ্রকেই রাজ্য পুলিশের ডিজি হিসেবে নিয়োগ করেন মুখ্যমন্ত্রী। আর রাজ্যের ডিজি নিয়োগ নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। যদিও রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে কখনও বলা হয়নি যে বীরেন্দ্রকে অস্থায়ীভাবে নিয়োগ করা হয়েছে।

বন্ধ করুন