বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > শুভেন্দু অধিকারীকে নয়াদিল্লি তলব করলেন অমিত শাহ, নেপথ্যে কারণ কী?
অমিত শাহ ও শুভেন্দু অধিকারী। (PTI Photo) (PTI)

শুভেন্দু অধিকারীকে নয়াদিল্লি তলব করলেন অমিত শাহ, নেপথ্যে কারণ কী?

  • গত ২০১৯ সালের মার্চ মাসে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে অর্জুন সিং বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। আর ৩ বছর ২ মাস ৮ দিন সেখানে ছিলেন। অর্জুন সিং রবিবার যাবতীয় পদ্মপাট চুকিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতেই ফিরলেন। তারপরই সোমবার দ্রুত বৈঠকে বসেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার দায়িত্ব পাওয়ার পরই নয়াদিল্লি যেতে হচ্ছে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। তবে সেটা নিজের ইচ্ছায় নয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ দেখে পাঠিয়েছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ককে। তবে কোন বিষয়ে আলোচনা করতে এই তলব?‌ তা কিছু জানানো হয়নি। যেভাবে বিজেপি থেকে একের পর এক উইকেট পতন হচ্ছে তাতে এই তলব বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

হঠাৎ এই তলব কেন?‌ সূত্রের খবর, অর্জুন সিংয়ের দলবদলে বিজেপির পিলার নড়ে গিয়েছে। আর শুভেন্দু বিজেপির এখন অনেক কিছুই জেনে গিয়েছেন। তাই তাঁর মতিগতি জানতেই এই জরুরি তলব করা হয়েছে। তাছাড়া এখন সংগঠন বাংলায় কোন পথে এগোবে তা নিয়েও আলোচনা হতে পারে দু’‌জনের মধ্যে। অর্জুন সিংকে কমব্যাট করার কৌশলও শুভেন্দুকে বাতলে দিতে পারেন শাহ। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের তলব পেয়ে এদিন সন্ধ্যার বিমানেই রাজধানী যাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী।

উল্লেখ্য, গত ২০১৯ সালের মার্চ মাসে তৃণমূল কংগ্রেস ছেড়ে অর্জুন সিং বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন। আর ৩ বছর ২ মাস ৮ দিন সেখানে ছিলেন। অর্জুন সিং রবিবার যাবতীয় পদ্মপাট চুকিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতেই ফিরলেন। তারপরই সোমবার দ্রুত বৈঠকে বসেন বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব।

ঠিক কী জানা যাচ্ছে?‌ সম্প্রতি বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডার কাছে সুকান্ত–শুভেন্দুর বিরুদ্ধে নালিশ ঠুকে ছিলেন অর্জুন সিং। তারপরই দল ছেড়ে দেন। এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে খানিক ভাবমূর্তি খারাপ হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর। তবে শাহের শুভেন্দুকে হঠাৎই এই তলব নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে। তাহলে কী শুভেন্দু অধিকারীকে আরও কোনও দায়িত্ব দেওয়া হবে?

বন্ধ করুন