বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > High Court: আদালত অবমাননার রুল জারি করতেই হাইকোর্টে উঠল অবরোধ, বয়কট জারি আইনজীবীদের একাংশের

High Court: আদালত অবমাননার রুল জারি করতেই হাইকোর্টে উঠল অবরোধ, বয়কট জারি আইনজীবীদের একাংশের

কলকাতা হাইকোর্ট। ছবি সৌজন্য : পিটিআই (PTI)

গত সোমবার বিচারপতি মান্থার এজলাস বয়টককে কেন্দ্র করে হাতাহাতি বেধে যায় আইনজীবীদের মধ্যে। আইনজীবীদের একাংশ আদালতের ১৩ নম্বর কক্ষে প্রবেশ করতে গেলে তৃণমূলপন্থী আইনজীবীরা তাতে বাধা দেন।

আদালত অবমাননার রুল জারি করতেই বিচারপতি রাজাশেখর মান্থার এজলাসের বাইরে অবরোধ উঠে গেল। তবে আইনজীবীদের একাংশ এখনো বয়কট চালিয়ে যাচ্ছেন বলে আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে। বুধবার সকাল থেকে বিচারপতি মান্থার এজলাসে স্বাভাবিক বিচারপ্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

গত সোমবার বিচারপতি মান্থার এজলাস বয়টককে কেন্দ্র করে হাতাহাতি বেধে যায় আইনজীবীদের মধ্যে। আইনজীবীদের একাংশ আদালতের ১৩ নম্বর কক্ষে প্রবেশ করতে গেলে তৃণমূলপন্থী আইনজীবীরা তাতে বাধা দেন।

কিন্তু রুল জারি করার পর পরিস্থিতি একেবারে পাল্টা গিয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে দশটার সময় আদালতের কাজকর্ম চালু হয়। বিচারপতি মান্থার এজলাসে এদিন একাধিক মামলার শুনানি হয়েছে বলে আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে।

তবে আইনজীবীদের একাংশ এখনও বয়কট জারি রেখেছেন। গত দুদিন ধরে আইনজীবের বয়কটেরে জেরে ৫০০-র বেশি মামলার শুনানি হয়নি হাইকোর্টে।

বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক বিশ্বব্রত বসু মল্লিক বিচারপতি মান্থাকে আশ্বস্ত করে বলেন,'এই এজলাসের সামনে আর কিছু হবে না, দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে'। তবে দু’পক্ষ না থাকলে কোনও মামলার রায় না দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন তিনি। বিচারপতি বলেন, ‘শুধু আমার এজলাস নয়, অন্য বিচারপতিদের এজলাসের সামনেও যেন না হয়। অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মামলার ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিতে হবে’।

এদিকে বিচারপতি মান্থার বিরুদ্ধে আইনজীবীদের বিক্ষোভের ঘটনায় ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। তিনি বুধবার সকালে কলকাতার পুলিশ কমিশনার বিনীত গোয়েল এবং স্বরাষ্ট্রসচিব বিপি গোপালিকা –কে রাজভবনে ডেকে পাঠান।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন