বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > Viral Check: ইয়েচুরির বক্তব্য বিকৃত করে বানানো হয়েছে ভাইরাল পোস্ট
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

Viral Check: ইয়েচুরির বক্তব্য বিকৃত করে বানানো হয়েছে ভাইরাল পোস্ট

  • এরই পালটা ভোপালে এক আলোচনাসভায় হিন্দিতে সীতারাম বলেন, ‘প্রচারক হওয়ায় উনি তো সারাক্ষণ রামায়ণ, মহাভারতের কথা বলেন। তাহলে এটুকু তো জানবেন যে সেখানে হিংসা তো হয়েছিল, মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল।

সিপিআইএমের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরিকে নিয়ে একটি সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ জানিয়েছে দল। কলকাতা পুলিশের সাইবার সেলে অভিযোগ দায়ের করেছেন খোদ দলের পশ্চিমবঙ্গ শাখার রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। অভিযোগে তিনি দাবি করেছেন, ইয়েচুরির বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত অপপ্রচার চালাচ্ছে ‘ইন্ডিয়া রাগ’ নামে একটি অনলাইন প্রকাশনা। কিন্তু সত্যিই কি এমন কোনও কথা বলেছিলেন সীতারাম? না কি তাঁর মন্তব্য বিকৃত করা হয়েছে। 

সম্প্রতি সোশ্যাল সাইটে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়। তাতে সীতারাম ইয়েচুরির ছবির নীচে লেখা, ‘হিন্দুরা কখনও শান্তিপ্রিয় হতে পারে না। হিন্দুরা হিংস্র: আর সেটার প্রমাণ রামায়ণ-মহাভারতেই পাওয়া যায়।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া বিতর্কিত পোস্ট। 
সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া বিতর্কিত পোস্ট। 

ইতিহাস ঘেঁটে দেখা যাচ্ছে, সীতারামের যে বক্তব্যের ভিত্তিতে বিতর্কিত এই পোস্ট তৈরি করা হয়েছে তা তিনি করেছিলেন ২০১৯ সালের ২ মে। তখন লোকসভা নির্বাচনের প্রচার চলছে জোর কদমে। সীতারামের মন্তব্যের আগের দিন বিজেপি নেত্রী সন্ন্যাসিনী প্রজ্ঞা দাবি করেছিলেন, ‘হিন্দুরা কখনও হিংস্র হতে পারে না।’

এরই পালটা ভোপালে এক আলোচনাসভায় হিন্দিতে সীতারাম বলেন, ‘প্রচারক হওয়ায় উনি তো সারাক্ষণ রামায়ণ, মহাভারতের কথা বলেন। তাহলে এটুকু তো জানবেন যে সেখানে হিংসা তো হয়েছিল, মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। এটা বলার মানে কি যে অন্য একটি সম্প্রদায়ের মানুষই শুধু হিংসা করে, আমরা হিংসা করি না?’

 

দেশের সমস্ত প্রথম সারির খবরের চ্যানেল ও সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়েছিল ওই মন্তব্য। সীতারামের মন্তব্য টুইট করেছিল সংবাদ সংস্থা ANI.

অর্থাৎ পোস্টে যেমনটা দাবি করা হয়েছে, তেমন কোনও কথা কখনওই বলেননি ইয়েচুরি। তিনি বলেছিলেন, অন্য ধর্মের মতো হিন্দু ধর্মেও হিংসার ইতিহাস রয়েছে। কিন্তু ‘হিন্দুরা কখনও শান্তিপ্রিয় হতে পারে না’ এমন কোনও মন্তব্য কখনওই করেননি তিনি। বরং তিনি বলেছিলেন, ‘কী করে বলা যেতে পারে যে হিন্দুরা কোনও দিন হিংসায় লিপ্ত হয়নি?’ প্রাথমিক ভাবে দেখে বোঝা যায়, সিপিআইএম সাধারণ সম্পাদকের মন্তব্যকে বিকৃত করে তৈরি করা হয়েছে ওই পোস্ট। 

 

বন্ধ করুন