বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > গড়ফায় মহিলার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, রেললাইনে আত্মঘাতী সঙ্গী, তদন্তে লালবাজার
তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

গড়ফায় মহিলার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, রেললাইনে আত্মঘাতী সঙ্গী, তদন্তে লালবাজার

  • গড়ফার শরৎ বোস কলোনির বাড়ি থেকে মুন্নি সিং গোবর্ধন শেঠের বাড়িতে এসে দরজা খুলে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় দেহ পড়ে রয়েছে শান্তি সিংয়ের। গোবর্ধন শেঠের সন্ধানে ফোন করেন মুন্নী সিং তার মোবাইলে। কিন্তু ফোনে পাওয়া যায়নি গোবর্ধন শেঠকে।

গড়ফা থানা এলাকায় এক মহিলার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। আর তার তদন্তে নেমে পুলিশের সামনে এল যেন সিনেমার চিত্রনাট্য। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছে। আর সেই ফ্ল্যাট থেকে কিছুটা দূরে রেললাইন থেকে ওই মহিলার সঙ্গীর দেহ উদ্ধার হয়েছে। খুনের খবর নিজেই ফোন করে জানিয়ে আত্মহত্যা করলেন পুরুষ–সঙ্গী। কী কারণে এই ঘটনা ঘটল?‌ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

ঠিক কী ঘটেছে গড়ফায়?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় হঠাৎ মুন্নী সিং–এর মোবাইলে ফোন করেন এক বাসচালক। ফোনে জানানো হয় শান্তি সিং খুন হয়েছে। আর তার দেহ আছে গড়ফার বাড়িতে। এই ঘটনার কথা বাসচালক গোবর্ধন শেঠ ফোন করে জানিয়ে দেন শান্তি সিং–এর বাড়ির আত্মীয় মুন্নী সিংকে। তারপরই গড়ফার বাড়িতে এসে দেখা যায় শান্তি সিং খুন হয়েছেন।

তারপর ঠিক কী ঘটল?‌ গড়ফার শরৎ বোস কলোনির বাড়ি থেকে মুন্নি সিং গোবর্ধন শেঠের বাড়িতে এসে দরজা খুলে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় দেহ পড়ে রয়েছে শান্তি সিংয়ের। গোবর্ধন শেঠের সন্ধানে ফোন করেন মুন্নী সিং তার মোবাইলে। কিন্তু ফোনে পাওয়া যায়নি গোবর্ধন শেঠকে। এরপরেই গোবর্ধন শেঠের নম্বর দিয়ে ফোন আসে মুন্নী সিংয়ের মোবাইলে। মুন্নীকে ফোনের অপর প্রান্ত থেকে বলা হয় রেল পুলিশ থেকে ফোন করা হচ্ছে। এক ব্যক্তির মৃতদেহ বালিগঞ্জ থেকে ঢাকুরিয়া স্টেশনের মাঝে মিলেছে। তখন গিয়ে দেখেন ওই ব্যক্তি গোবর্ধন শেঠ। গোটা ঘটনার কথা মুন্নী সিং গড়ফা থানায় জানান।

কী তথ্য পেয়েছে পুলিশ?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, গড়ফা থানার তদন্তকারী অফিসার শান্তি সিংয়ের দেহ উদ্ধার করে। রেলপুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে তথ্য সংগ্রহ করে গড়ফা থানা। ঘটনাস্থলে যায় লালবাজারের হোমিসাইড বিভাগ। ঘটনাস্থলে আসেন এসএসডি’‌র ডেপুটি কমিশনার অবদেশ পাঠক। প্রাথমিক তদন্তে উঠে এসেছে, গোবর্ধন শেঠ রেললাইনে আত্মহত্যা করেছেন। আর শান্তি সিংয়ের দেহ গড়ফার ওই বহুতলের নীচের ঘর থেকে উদ্ধার হয়েছে। শান্তি সিংকে শ্বাসরোধ করে খুন করা হয়েছে ও মাথায় আঘাত করা হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্টে পুরো বিষয়টি স্পষ্ট হবে।

বন্ধ করুন