বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > পরিস্থিতি ভয়াবহ, কোচবিহারে খুন তৃণমূল কর্মী, কাঠগড়ায় বিজেপি
তৃণমূল কর্মী খুনের জেরে এলাকায় পুলিশের টহল (নিজস্ব চিত্র)
তৃণমূল কর্মী খুনের জেরে এলাকায় পুলিশের টহল (নিজস্ব চিত্র)

পরিস্থিতি ভয়াবহ, কোচবিহারে খুন তৃণমূল কর্মী, কাঠগড়ায় বিজেপি

  • কেউ যেন প্রতিহিংসাপরায়ণ আচরণ না করে, বার্তা দিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

প্রাক্তন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষের বিধানসভাকেন্দ্র কোচবিহারের নাটাবাড়ি। এবার নিজের কেন্দ্রতেই হেরে গিয়েছেন তিনি। জয়ী হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী মিহির গোস্বামী। বুধবার সকালে সেই নাটাবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের চিলাখানা সংলগ্ন এলাকায় উদ্ধার হয়েছে এক তৃণমূল কর্মীর হাত-পা বাঁধা ও ক্ষত বিক্ষত রক্তাক্ত মৃতদেহ । ওই তৃণমূল কর্মীর নাম শাহিনুর রহমান। ৩২ বছর বয়সী ওই তৃণমূল কর্মীর দেহ উদ্ধারকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকায়।  স্থানীয় বাসিন্দারাই তুফানগঞ্জ থানায় খবর দেন। বিশাল পুলিশবাহিনী  এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনার চেষ্টা করে।

কিন্তু তবুও বাসিন্দাদের দাবি এলাকায় উত্তেজনা ছড়াচ্ছে ক্রমশ। চিলাখানা বাজার সংলগ্ন এলাকাতেও দফায় দফায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বাসিন্দাদের দাবি মঙ্গলবার সকাল থেকেই নাটাবাড়ি বিধানসভা ও তুফানগঞ্জ বিধানসভার বিভিন্ন এলাকায় বিজেপি কর্মীদের ঘর বাড়িতে ভাঙচুর চলে। তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। এরপরে দুপুর থেকে পালটা প্রতিরোধে নামে বিজেপি। স্থানীয় সূত্রে খবর এমনটাই।তবে হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল ও বিজেপি দুপক্ষই। এলাকায় বিশাল পুলিশবাহিনী টহল দিচ্ছে।কিন্তু প্রশ্ন উঠছে রাজনৈতিক হিংসায় আর কত মায়ের কোল খালি হবে, আর কত সন্তান হারাবে তাদের বাবাকে?

স্থানীয় এক তৃণমূল নেতা বলেন, ভোটে জেতার পর থেকেই এলাকায় অত্যাচার চালাচ্ছে বিজেপি। তারই পরিণতিতে এই ভয়াবহ ঘটনা। এলাকায় পরিস্থিতি ক্রমে উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। এব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ না নিলে পরিস্থিতি আরও বিগড়ে যেতে পারে।

 

বন্ধ করুন