বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Aamir Khan's Daughter: ‘আমি তখন ১২, মা আমার মানসিক চিকিৎসার জন্য থেরাপিতে পাঠান’, বলছেন আমির কন্যা ইরা

Aamir Khan's Daughter: ‘আমি তখন ১২, মা আমার মানসিক চিকিৎসার জন্য থেরাপিতে পাঠান’, বলছেন আমির কন্যা ইরা

আমির খানের মেয়ে ইরা

ইরা খান জানান, তাঁর বাবা আমির খান পাবলিক ফিগার। তাই তাঁর পরিবার বরাবরই লাইমলাইটে থাকত। এই বিষয়টিও তাঁকে মানসিকভাবে প্রভাবিত করত বলে জানান ইরা। বলেন, বাইরে তাঁকে পরিবার নিয়ে নানান কথা বলত। এবিষয়ে তাঁর মা রীনা তাঁকে বলতেন 'বোকা লোকেরা বোকা কথা বলেন। বাইরে কেউ কিছু বললেই সেটা সত্যি হয় না।'

ছোটবেলাতেই মানসিক অবসাদের শিকার হয়েছিলেন আমির খান কন্যা ইরা। সম্প্রতি এবিষয়ে মুখ খুলেছেন ইরা। নিজের মানসিক সমস্যা নিয়ে কথা বলতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করেননি আমির কন্যা। জানিয়েছেন, তাঁর তখম মাত্র ১২ বছর বয়স, তখনই তাঁর মা রীনা দত্ত তাঁকে থেরাপির জন্য মনোবিদের কাছে পাঠিয়েছিলেন।

ইরার কথায়, ‘সালটা ২০১৯, আমি তখন একটা নাটকে কাজ করছিলাম এবং আমি জানতাম যে আমি অবসাদে ভুগছি। একজনের সঙ্গে কথা বলে জানতে পারি, যে কীভাবে এ আর রহমানের মতো মানুষ মানসিক উদ্বেগ থেকে বেরিয়ে এসেছেন এবং কীভাবে তাকে সেটার সঙ্গে মোকাবিলা করতে কাউকে সাহায্য করছেন, অনুপ্রাণিত করেছেন। যদিও আমার পরিবার আমার পাশে ছিল, আমার আর্থিক বা অন্য কোনও সমস্যা ছিল না। আর এই সমস্যা থেকে আরও অনেককে বের হয়ে আসতে আগাতসু তৈরি করি’। প্রসঙ্গত, মানসিক অবসাদে ভোগা বহু মানুষকে সমস্যা থেকে বের করে আনতে নিজের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘অগতসু ফাউন্ডেশন’ খোলেন ইরা খান।

আরও পড়ুন-পলকের জ্যাকেট হাতে বের হলেন ইব্রাহিম, চুটিয়ে প্রেম! এই সম্পর্কে সম্মতি আছে বাবা-মায়ের?

আরও পড়ুন-কলকাতায়-রণবীর আলিয়া, দুর্গাপুজোর আবহে তৈরি ‘ধিন্ডোরা বাজে রে’! হাজির চূর্নী-টোটা

আরও পড়ুন-'মা সেলাই করতেন, যোধপুর পার্কে এক কামরার বাড়িতে শৈশব কেটেছে', অকপট রূপা গঙ্গোপাধ্যায়

ইরা খান জানান, খুব ছোটতে যখন তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন, তখন তাঁর ১২ বছর বয়স। তখন তাঁর মা রীনা তাঁকে চিকিৎসকের কাছে পাঠিয়েছিলেন, থেরাপি নিতে। যদিও তিনি সেসময় যেতে চাননি। তবে তাঁর মা তাঁকে বুঝিয়েছিলেন। 

ইরা খান জানান, তাঁর বাবা আমির খান পাবলিক ফিগার। তাই তাঁর পরিবার বরাবরই লাইমলাইটে থাকত। এই বিষয়টিও তাঁকে মানসিকভাবে প্রভাবিত করত বলে জানান ইরা। বলেন, বাইরে তাঁকে পরিবার নিয়ে নানান কথা বলত। এবিষয়ে তাঁর মা রীনা তাঁকে বলতেন 'বোকা লোকেরা বোকা কথা বলেন। বাইরে কেউ কিছু বললেই সেটা সত্যি হয় না। তাই এখন আর কেউ কিছু বললে আমায় যায় আসে না।'

প্রসঙ্গত, এর আগেও খুব ছোট বয়সে মানসিক অবসাদে ভুগতেন তিনি। এর আগেও এবিষয়ে কথা বলেছিলেন আমির কন্যা ইরা। যখন রীনা দত্ত এবং আমির খানের বিচ্ছেদ হয় তখন ইরা খানের বয়স মাত্র ৫। আর ওই ঘটনা ইরার মনকে প্রভাবিত করেছিল। ইরার কথায়,  ‘বাবা-মা’র বিচ্ছেদটা হতই, তবুও আমার মন খারাপ হয়ে গিয়েছিল। আমি কাউকে কিছু বলিনি যেহেতু ওঁরা আমাকে নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়বেন, এদিকে আমি খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করেছিলাম'। ইরার কথায়, ‘একটা সময় দিনে প্রায় ৮ ঘন্টা কাঁদতেন, এবং ১০ ঘন্টা ঘুমিয়ে কাটাতেন।’ 

তবে আমির কন্যা ইরা খান একবার নয়, বারবার মানসিক অবসাদের শিকার হয়েছেন। জানিয়েছেন গত বছর জুলাইতেও নাকি তিনি এই একই সমস্যায় ভুগছিলেন।

 

বায়োস্কোপ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

মেষ-বৃষ-মিথুন-কর্কট রাশির কেমন কাটবে মঙ্গলবার? জানুন রাশিফল মঙ্গলে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হবে ৫ জেলায়, জারি সতর্কতা, এবার আরও বাড়বে গরম? অনুপমের বিয়ের খবর শুনেই বইছে কটাক্ষের বন্যা, ভুক্তভুগী শ্রীময়ী বললেন কী কী? EPL 2023 (West Ham United vs Brentford) Live Updates: অন্ধ্র ক্রিকেট সংস্থাকে কাঠগড়ায় তুলেছেন, পালটা তদন্ত শুরু হনুমার বিরুদ্ধে ‘আপনাকে তাড়া করেছে?’ নামের গেরোয় পিংলার বিধায়ককে হাসপাতালেই নাগড়ে ফোন অগ্নাশয়ের ক্যানসারে ভুগছিলেন পঙ্কজ! কী বলছেন অনুপ জালোটা-হরিহরণ মা-মামিমার বনিবনা হচ্ছে না! অশান্তির মাঝেই বোন আরাধ্যাকে নিয়ে মুখ খুললেন নভ্যা সাভারকার হয়ে উঠতে জেলে নিজেকে বন্দি করে রাখেন রণদীপ! লেখেন, ‘আমি ২০ মিনিটও…’ লোহার বিম তুলতে গিয়ে উল্টে গেল হাইড্রোলিক ক্রেন! দুর্ঘটনা কোনা এক্সপ্রেসওয়েতে

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.