বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > বিচ্ছেদের দু-বছরের মধ্যেই ফের বিয়ের পিঁড়িতে দিয়া মির্জা, পাত্র কে?
দিয়া মির্জা (ছবি সৌজন্যে- ভাইরাল ভায়ানি) 
দিয়া মির্জা (ছবি সৌজন্যে- ভাইরাল ভায়ানি) 

বিচ্ছেদের দু-বছরের মধ্যেই ফের বিয়ের পিঁড়িতে দিয়া মির্জা, পাত্র কে?

  • সূত্রের খবর আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি বিয়ের পর্ব সারছেন দিয়া মির্জা।

ভালোবাসার মরসুম চলছে। আর এই রোম্যান্টিক আবহেই দিয়া মির্জার জীবনেও নতুন বসন্ত। প্রযোজক সাহিল সঙ্ঘার সঙ্গে বিচ্ছেদের বছর দুয়েকের মাথায় ফের বিয়ের পিঁড়িতে প্রাক্তন মিস এশিয়া প্যাসিফিক। নায়িকার ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর মুম্বইয়ের ব্যবসায়ী বৈভব রেখির সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন দিয়া মির্জা। বেশ কয়েক মাস ধরেই দিয়া-বৈভবের প্রেমের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। যদিও বিয়ের খবর নিয়ে মুখ খোলেননি অভিনেত্রী বা তাঁর মুখপাত্র। 

স্পটবয়ই-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রহনা হ্যায় তেরে দিল মে খ্যাত নায়িকা আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি, অর্থাত্ দু-দিন পরেই বিয়ে সারছেন।  কেবলমাত্র দুই পরিবার ও ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উপস্থিতিতেই হবে বিয়ের সাদামাটা অনুষ্ঠান, বিয়ে নিয়ে কোনও লাইমলাইট চাইছেন না দিয়া। অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকেই নাকি এহেন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দিয়া মির্জা। দিয়ার বিয়ের খবর জানিয়েছেন, বলিউডের জনপ্রিয় পাপারাতজি ভাইরাল ভায়ানিও। প্রি-ওয়ে়ডিং সেলিব্রেশন নাকি ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে দিয়ার বাড়িতে।

ভাইরাল লেখেন, আপনাদের ধাঁধার আকারে দিয়ার বিয়ের লুকের ছবি নিয়ে সম্প্রতি বোঝাতে চাইছিলাম। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি বয়ফ্রেন্ড বৈভব রেখির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধছেন দিয়া মির্জা। কোনও জাঁকজমক নয়, পরিবারের উপস্থিতিতেই বিয়ে সারবেন দিয়া'। উল্লেখ্য দিন কয়েক আগেই কনের সাজে দিয়া মির্জার ব়্যাম্পে হাঁটার ছবি শেয়ার করেছেন এই জনপ্রিয় পাপারাতজি। 

কনের সাজে দিয়া (বাঁ দিকে) এবং বৈভব রেখি
কনের সাজে দিয়া (বাঁ দিকে) এবং বৈভব রেখি

২০১৪ সালে নিজের বিজনেস পার্টনার সাহিল সঙ্ঘার সঙ্গে বিয়ে করেন দিয়া মির্জা। এরপর আচমকাই ছন্দপতন। বিয়ের পাঁচ বছরের মাথায়, ২০১৯ সালের অগস্ট মাসে বিচ্ছেদের ঘোষণা সারেন দিয়া-সাহিল। আনুষ্ঠানিক বিবৃতে তাঁরা জানান, 'আমারা বন্ধু ছিলাম আর আজীবন থাকব । সুখে-দুঃখে একে অপরের পাশেও থাকব। হয়ত আমাদের এই যাত্রাপথ অন্যদিকে আমাদের নিয়ে যাবে। তবে একসঙ্গে যে সফর আমরা পেরিয়ে এসেছি সেটা কোনওদিনই ভোলবার নয়'।

ব্রন ফ্রি এন্টারটেনমেন্ট বলে একটি প্রযোজনা সংস্থা চালাতেন দিয়া ও সাহিল। ‘লাভ ব্রেকআপ জিন্দেগি’র মতো ছবি প্রোডিউস করেছেন তাঁরা, ডিভোর্সের পর এই সংস্থা থেকে সরে দাঁড়ান দিয়া, এবং ‘ওয়ান ইন্ডিয়া স্টোরিস নামে নিজের প্রযোজনা সংস্থা স্থাপন করেন ( ডিসেম্বর, ২০১৯)। পর্দায় শেষ দিয়াকে দেখা গিয়েছে ‘থাপ্পড়’ ছবিতে, আপতত তেলেগু ছবি ‘ওয়াইল্ড ডগ’-এর শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত অভিনেত্রী। 

বন্ধ করুন