বাড়ি > বায়োস্কোপ > করোনা আক্রান্ত দীপিকার মা,কেজরিওয়ালের কাছে সাহায্য প্রার্থনা অভিনেত্রীর
দীপিকা সিং (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
দীপিকা সিং (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

করোনা আক্রান্ত দীপিকার মা,কেজরিওয়ালের কাছে সাহায্য প্রার্থনা অভিনেত্রীর

  • মায়ের রিপোর্ট করোনা পজিটিভ তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেই রিপোর্ট হাতে দিতে অস্বীকার করেছে বলে অভিযোগ অভিনেত্রী দীপিকা সিংয়ের।

 করোনা আক্রান্ত টেলিভিশন তারকা দীপিকা সিংয়ের মা। দিয়া অউর বাতি হাম খ্যাত এই অভিনেত্রীর বাপের বাড়ি দিল্লিতে। শুক্রবার মায়ের করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার খবর অভিনেত্রীর কানে পৌঁছাতেই মুম্বইতে বসেই চিন্তায় ঘুম উড়েছে তাঁর। শুধু তাই নয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন নায়িকা,ভাইরাল সেই ইনস্টা ভিডিয়ো। দীপিকা সিং ভিডিয়োয় দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কাছে সাহায্য প্রার্থনা করেছেন এবং জানিয়েছেন দিল্লির লেডি হারডিংগে মেডিক্যাল কলেজ থেকে তাঁর মাকে করোনার টেস্টি রিপোর্ট হাতে দেওয়া হয়নি সেই কারণেই তাঁর করোনা আক্রান্ত মাকে কোনও হাসপাতালে ভর্তি করা সম্ভব হয়নি। শুধু তাই নয় তাঁর বাবা-মা যৌথ পরিবারে থাকেন যেখানে প্রায় ৪৫  জন সদস্য রয়েছেন,সকলের সুরক্ষা নিয়েও চিন্তিত দীপিকা।  

টুইট বার্তায় দীপিকা লেখেন, আমার মা করোনা পজিটিভ। আমার বাবা-মা দিল্লিতে রয়েছেন। ওঁনাদের টেস্ট হয়েছে লেডি হারডিংগে হাসপাতালে,কিন্তু তাঁদের রিপোর্ট দেওয়া হয়নি। শুধু বাবাকে রিপোর্টের ছবি তুলতে দেওয়া হয়েছে। আশা করছি উপযুক্ত মানুষদের কাছে এই বার্তা পৌঁছে যাবে এবং আমার মা কিছু সাহায্য পাবেন। আপনাদের সাহায্য চাই'। নিজের পোস্টে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ট্যাগ করেন দীপিকা। 

দীপিকা জানিয়েছেন তাঁর ঠাকুমার ৯০ বছর বয়স এবং তাঁর শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে। তাঁর মা বাড়ির বাইরে বার হয়নি, এবং তা সত্ত্বেও কীভাবে তিনি করোনা আক্রান্ত হলেন তা বুঝে উঠতে পারছেন না!

শনিবার সকালে টুইটারে দিল্লির ডেপুটি কমিশনার অভিষেক সিং অভিনেত্রীকে প্রশ্ন করেন তাঁর মাকে হাসপাতালে ভর্তি করা সম্ভব হয়েছে কিনা? জবাবে দীপিকা জানান, ‘না, এখনও সম্ভব হয়নি..উনি বাড়িতেই রয়েছেন..আমার ঠাকুমার পরিস্থিতি খুবই খারাপ,ওঁনাকে জীবন নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে। আমি ওঁনাদের গঙ্গরাম হাসপাতালে ভর্তি করাতে চাইছি এবং বাবারও করোনা পরীক্ষা দ্রুত হোক সেই চেষ্টা চালাচ্ছি’।

বন্ধ করুন