বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'ব্যাটম্যান'-এর ঠোঁটে ঠোঁট, নিজেদের সম্পর্কের গুঞ্জন বাড়ালেন জেনিফার লোপেজ!
বেন অ্যাফ্লেক এবং মার্কিন পপষ্টার জেনিফার লোপেজ। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
বেন অ্যাফ্লেক এবং মার্কিন পপষ্টার জেনিফার লোপেজ। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

'ব্যাটম্যান'-এর ঠোঁটে ঠোঁট, নিজেদের সম্পর্কের গুঞ্জন বাড়ালেন জেনিফার লোপেজ!

  • এবার প্রকাশ্যেই 'ব্যাটম্যান'-খ্যাত অভিনেতা বেন অ্যাফ্লেক-এর ঠোঁটে ঠোঁট রেখে তাঁদের সম্পর্কের গুঞ্জনকে একলাফে বাড়িয়ে দিলেন জেনিফার লোপেজ। মায়ামির ফ্লোরিডা অঞ্চলে এক জিমে ঘটেছে এই ঘটনা। 

গত বেশ কিছুদিন ধরেই ফিসফাস শুরু হয়েছে অস্কারবিজয়ী বিখ্যাত অভিনেতা বেন অ্যাফ্লেক এবং বিশ্ববিখ্যাত মার্কিন পপষ্টার জেনিফার লোপেজ-এর সম্পর্ক ঘিরে। এরপর এই জুটিকে একসঙ্গে মায়ামি-তে ছুটি কাটাতে দেখা গেলে সেই ফিসফাস ক্রমশ পরিণত হয়েছে গর্জনে। তা সত্ত্বেও ওই দুই তারকার তরফে এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। তবে এবার প্রকাশ্যেই 'ব্যাটম্যান'-খ্যাত অভিনেতা বেন অ্যাফ্লেক-এর ঠোঁটে ঠোঁট রেখে তাঁদের সম্পর্কের গুঞ্জনকে একলাফে বাড়িয়ে দিলেন 'জে লো'। সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা গেছে মায়ামির ফ্লোরিডা অঞ্চলে ছুটি কাটাচ্ছেন এই তারকা জুটি। সেখানকারই এক জিমে তাঁদের একসঙ্গে ব্যায়াম করতে দেখেছেন এক ব্যক্তি।

 সেই প্রতক্ষ্যদর্শীর মতে জিমের মধ্যেই ব্যায়াম করার ফাঁকে ঘনিষ্ঠভাবে একে অপরের ঠোঁটে ঠোঁট ডুবিয়েছিলেন তাঁরা। সেই ব্যক্তির কথায় 'কোনও কিছু' লুকোনোর চেষ্টাই করছিলেন না 'ব্যাটম্যান'। যদিও আলাদা আলাদা ফিটনেস ট্রেনারের কাছে শারীরিক কসরৎ করছিলেন বেন ও জেনিফার তবু নিজেদের বর্তমান সম্পর্কের রসায়নকে খুল্লামখুল্লা প্রকাশ করতে পিছপা হননি এঁদের কেউই।বিভিন্ন এক্সারসাইজের সেট শেষ করার পর মাঝেমাঝেই নাকি একে অপরের সঙ্গে খুনসুটিতে মেতে উঠেছিলেন জেনিফার ও বেন। প্রবল হাসাহাসির মাঝপথেই নাকি েকে ওপরের ঘনিষ্ঠ হয়ে নিবিড়ভাবে ঠোঁটে ঠোঁট রাখছিলেন তাঁরা। পরস্পরের সঙ্গে যে দুর্দান্ত সময় কাটাচ্ছেন এই জুটি তা বুঝতে নাকি ওই জিমে উপস্থিত কারোরই বুঝতে কোনও অসুবিধে হয়নি। অনেকের মতে, এই জুটিকে তখন দেখে মনে হচ্ছিল তাঁরা যেন নিজেদের 'মধুচন্দ্রিমা' কাটাচ্ছেন!

সূত্রের খবর, প্রতিদিন ব্যায়াম করাটা জেনিফারের অভ্যাস। বেশ কড়াভাবেই এই নিয়ম মেনে চলেন তিনি। পারতপক্ষে জিম মিস করেন না এই তন্বী পপস্টার। তাই জেনিফারের আরও একটু কাছাকছি থাকার জন্য জিমে হাজির হয়েছিলেন বেন-ও। বলাই বাহুল্য, এই খবরে আশায় বুক বাঁধছেন জেনিফার ও বেনের অনুরাগীরা। প্রসঙ্গত, ২০০২ সালে জেনিফার ও বেন সম্পর্কে থাকলেও ২০০৪ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়ে যায়। তবে সম্প্রতি অ্যালেক্স রডরিগেজ-এর সঙ্গে চার বছরের সম্পর্কের বিচ্ছেদ টেনেছেন জেনিফার। অন্যদিকে, গত জানুয়ারিতে অভিনেত্রী আনা দে আর্মাস-এর সঙ্গে নিজের সম্পর্কে চ্ছেদ টেনেছেন বেন। তারপরেই এই জুটিকে একসঙ্গে দেখা গেছে মায়ামিতে।

বন্ধ করুন