বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Mimi Chakraborty: মিমির গলা দিয়ে বেরোচ্ছে না আওয়াজ, এ কেমন গান! সোশ্যাল মিডিয়ায় টোটাল খিল্লি
পুজোর গানের ভিডিয়ো শেয়ার করে ট্রোলড মিমি। 

Mimi Chakraborty: মিমির গলা দিয়ে বেরোচ্ছে না আওয়াজ, এ কেমন গান! সোশ্যাল মিডিয়ায় টোটাল খিল্লি

  • এ কী হাল হল মিমি চক্রবর্তীর। শব্দ ছাড়া পুজোর গানের ঝলক শেয়ার করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল হল মিমি। 

এপ্রিল ফুল হয়েছেন কখনো? এই ভরা শরতে এসে কিছুটা এরকমই বোধ হতে পারে আপনার। আর এর পিছনে হাত রয়েছে মিমি চক্রবর্তীর। টলিউডের অভিনেত্রী হিসেবে নাম করেছেন মিমি। সঙ্গে তিনি একজন সফল সাংসদও। রাজনীতির আঙ্গনেও রাজ করছেন আজকাল। তবে এসবের সঙ্গে মিমি খুব ভালো গানও গান। এর আগেও বেশ কয়েকটা গানের ভিডিয়ো প্রকাশ পেয়েছে তাঁর। পুজোতে এল নতুন ভিডিয়ো। এত অবধি শুনে ভাবছেন এখানে বোকা বানানো হল কই? শুনুনই না!

পুজোর আগে আসতে চলেছে তারকা সাংসদের পুজোর নতুন গান। আর তারই একটা টিজার ভিডিয়ো তিনি শেয়ার করে নিয়েছেন সোশ্যালে। আর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘এবার আমাদের পুজো শুরু একটু আগে থেকেই...আসছি নিয়ে আমাদের পুজোর গান...Stay tuned for more details।’ লালপাড় সাদা শাড়ি আর সোনার গয়নায় ঢাক কাঁধে জমিয়ে নাচতে দেখা গেল মিমিকে, সঙ্গে গানও গাইছেন। কিন্তু দেখা গেল, মিমি গান গাইলেও সেই গানে কোনও শব্দ নেই। মানে কোনও গোলমালের কারণে সেই ভিডিয়োতে কোনও শব্দ নেই। ব্যাপারটা বোঝা গেলেও নিজেদের মধ্যে মস্করায় মাতল সোশ্যাল মিডিয়া। আরও পড়ুন: মালাইকার শো-তে একসঙ্গে আরবাজ-অর্জুন, আরোরা বোনরা সামলাতে পারবে তো

একজন কমেন্ট সেকশনে লিখেছেন, ‘এতো সুন্দর গান যারা শুনতে পাওনি তাঁদের মনে প্যাঁচ আছে।’ অপরজন লিখলেন, ‘শব্দদূষণবিহীন গান... আহা! এনভায়রনমেন্ট ফ্রেন্ডলি...’ কেউ আবার আবদার করলেন, ‘একটু দেখুন না মমতাদির ভাষনের সময় এটা অ্যাপ্লাই করা যায় নাকি।’ এক জনৈক লিখেছেন, ‘মিমি চক্রবর্তীর কন্ঠে অসাধারণ নৃত্য দেখে মন শিহরিত হয়ে উঠল।’ আরেক ব্যক্তি লিখলেন, ‘প্রথমে ভাবছি মোবাইলের স্পিকার খারাপ হয়ে গেছে। কি অপূর্ব গান, যেমন সুর আর তেমন গলা....মন ভরে গেল...’ আরও পড়ুন: টাইট হয়েছে ব্রা, সোজা হৃতিকের কাছে অভিযোগ জানালেন শ্রীলেখা

এদিকে একদল আবার মিমির কণ্ঠে নিজেদের কথা বসিয়ে ভিডিয়োটা আপলোড করে দিয়েছেন। মানে যাকো বলে টোটাল খিল্লি। তবে কেউ কেউ আবার ইচ্ছে করে এই কাজ করা হয়েছে এমন সম্ভাবনা এরিয়ে দিচ্ছেন না। কারণ হতে পারে এটা হয়তো পাবলিসিটি স্টান্ট। নেগেটিভ প্রচারও তো একটা প্রচার।

 

বন্ধ করুন