বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > সৌরভ হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ট্রোল, বিজ্ঞাপন তুলে নিল ফরচুন : রিপোর্ট
সেই বিজ্ঞাপনে সৌরভ। (ছবি সৌজন্য টুইটার)
সেই বিজ্ঞাপনে সৌরভ। (ছবি সৌজন্য টুইটার)

সৌরভ হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ট্রোল, বিজ্ঞাপন তুলে নিল ফরচুন : রিপোর্ট

  • বিজ্ঞাপনে আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল, হৃদপিণ্ড স্বাস্থ্যকর রাখবে সেই তেল।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় মৃদু হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পরই শুরু হয় ট্রোল। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে ‘মিম’। সেই পরিস্থিতিতে ফরচুন তেলের সব বিজ্ঞাপন স্থগিত করে দিল আদানি উইলমার। বিষয়টির সঙ্গে অবহিত দু'জনকে উদ্ধৃত করে একথা জানিয়েছে দ্য ইকোনমিকস টাইমস।

সেই ভোজ্য তেলের বিজ্ঞাপনী কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি জানান, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) প্রেসিডেন্টকে মডেল করে যে বিজ্ঞাপন তৈরি করা হয়েছিল, সেগুলি সবধরনের প্ল্যাটফর্ম থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। পরিবর্তে নয়া মোড়কে একটি বিজ্ঞাপন তৈরি করা হবে। তা নিয়ে ইতিমধ্যে কাজ শুরু করেছে বিজ্ঞাপন নির্মাতা সংস্থা। 

গত বছর জানুয়ারিতে সৌরভকে ফরচুন রাইস ব্র্যান অয়েলের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল। যে বিজ্ঞাপনে দাবি করা হয়েছিল, হৃদপিণ্ড স্বাস্থ্যকর রাখবে সেই তেল। বিভিন্ন মাধ্যমে রমরমিয়ে সেই বিজ্ঞাপন চলছিল। কিন্তু গত শনিবার সৌরভ হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার পরই বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। অনেকে যথেচ্ছভাবে ট্রোল করতে থাকেন। খোঁচা দেওয়া হয় সৌরভকেও। খোঁচা দেওয়ার তালিকা থেকে বাদ যাননি প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটাররাও। 

শনিবার টুইটারে সৌরভের সেই বিজ্ঞাপনের একটি ছবি পোস্ট করেন ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য কীর্তি আজাদ। তাতে লেখা ছিল, ৪০ বছরের পর সেই তেলের রান্না খেলে হৃদপিণ্ড ভালো থাকে। সঙ্গে কংগ্রেস নেতা লেখেন, ‘দাদা তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন। সবসময় পরীক্ষিত পণ্যের প্রচার করুন। সচেতন এবং সতর্ক হন। ঈশ্বর মঙ্গল করুন।’

বিজ্ঞাপন সংস্থার আধিকারিকদের ধারণা, সোশ্যাল মিডিয়ায় যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে, তা থেকে আবারও গ্রাহকদের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের জন্য দ্রুত ব্যবস্থা করতে হবে ফরচুনকে। জোর দিতে হবে নয়া কৌশলে। তবে ফিরেই পাওয়া যাবে গ্রাহকদের আস্থা। একইসঙ্গে একাংশের ধারণা, সৌরভকেই ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হিসেবে রাখতে পারে ভোজ্য তেলের সংস্থা। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে ফরচুনকে বিজ্ঞাপনের বার্তা পরিবর্তন করতে হবে।

বন্ধ করুন