বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গোরক্ষনাথ মন্দিরে হামলা ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ IIT স্নাতকের, তদন্তে ATS-STF
ঘটনায় অভিযুক্ত আহমেদ মুর্তজা আব্বাসি (PTI)

গোরক্ষনাথ মন্দিরে হামলা ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’ IIT স্নাতকের, তদন্তে ATS-STF

  • গোরক্ষনাথ মন্দিরের সামনে ঘটা এই ঘটনাটিকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে গণ্য করছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ।

রবিবার সন্ধ্যায় উত্তরপ্রদেশের গোরক্ষনাথ মন্দিরের বাইরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুই পুলিশ সদস্যকে আক্রমণ করেন এক আইআইটি স্নাতক। এই ঘটনাকে ‘সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ’ আখ্যা দিল উত্তরপ্রদেশ সরকার। ঘটনার তদন্ত করবে স্পেশাল টাস্ক ফোর্স এবং অ্যান্টি টেররিস্ট স্কোয়াদের সদস্যরা। ঘটনায় অভিযুক্ত আহমেদ মুর্তজা আব্বাসির পরিবারের সদস্যদের অবশ্য দাবি যে হামলাকারী মানসিক ভারসাম্যহীন। 

রবিবার আহমেদ ধর্মীয় স্লোগান দিতে দিতে মন্দিরে ঢোকার চেষ্টা করে। সেই সময় গোরক্ষনাথ মন্দিরে মোতায়েন দুই পিএসি কনস্টেবল তাঁকে বাধা দিলে আহমেদ ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রণ করে তাঁদের উপর। পরে বেশ কয়েকজন এসে আহমেদকে ঠেকায়। এরপর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। এরপরই উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানিয়েছিল যে ঘটনাটিকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে গণ্য করা হবে। প্রসঙ্গ, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এই গোরক্ষনাথ মঠের প্রধান পুরোহিত।

জানা গিয়েছে আহমেদ ২০১৫ সালে আইআইটি বম্বে থেকে স্নাতক হন। গ্রেফতারির সময় আহমেদের কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ, একটি ফোন ও একটি টিকিট পাওয়া গিয়েছিল। এই ঘটনা প্রসঙ্গে অতিরিক্ত মহাপরিচালক (আইন শৃঙ্খলা) প্রশান্ত কুমার বলেন, ‘ওই ব্যক্তির কাছ থেকে উদ্ধার হওয়া বস্তু দেখে মনে হচ্ছে এটা একটা বড় ষড়যন্ত্র। আমরা মনে করি যে এটি একটি সন্ত্রাসী হামলা হতে পারে।’ জানা গিয়েছে, ঘটনার পর প্রাথমিকভাবে দুটি মামলা দায়ের করা হয় আহমেদের বিরুদ্ধে।

বন্ধ করুন