বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Operation Lotus in Jharkhand: ‘বাংলার মাটিতে চলছে ঝাড়খণ্ড সরকার ভাঙার কাজ’, অপারেশন লোটাস নিয়ে সরব কংগ্রেস
গাড়িতে ঠাসা ৫০০ টাকার নোটের বান্ডিল, হাওড়ায় কংগ্রেস বিধায়কদের গাড়ি ধরল পুলিশ

Operation Lotus in Jharkhand: ‘বাংলার মাটিতে চলছে ঝাড়খণ্ড সরকার ভাঙার কাজ’, অপারেশন লোটাস নিয়ে সরব কংগ্রেস

  • ঘটনার পর কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ টুইট করে লেখেন, ‘ঝাড়খণ্ডে বিজেপির অপারেশন লোটাসের পর্দা ফাঁস হয়ে গিয়েছে হাওড়ায়। মহারাষ্ট্রে যা হয়েছিল, ঝাড়খণ্ডেও ইডিকে কাজে লাগিয়ে সেই কাজ করতে চাইছে বিজেপি।’

‘অপারেশন লোটাস’-এর পর্দা ফাঁস হয়েছে। হাওড়ায় ঝাড়খণ্ড বিধায়কদের গাড়ি থেকে বান্ডিল বান্ডিল নগদ উদ্ধারে এমনই দাবি করল কংগ্রেস। কংগ্রেস আগে থেকেই অভিযোগ করে আসছিল যে ঝাড়খণ্ডের হেমন্ত সোরেনের সরকার ফেলার চক্রান্ত শুরু করেছে বিজেপি। পস্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা শুভেন্দুর গলাতেও সেই ‘ইঙ্গিত’ মিলেছিল। এরই মাঝে হাওড়ার রানিহাটি থেকে ঝাড়খণ্ডের বিধায়কের গাড়িতে মিলল প্রচুর নগদ অর্থ। জানা গিয়েছে, যে গাড়ি থেকে টাকা উদ্ধার হয়েছে, তাতে ছিলেন তিন কংগ্রেস বিধায়ক।

এই ঘটনার পর কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক জয়রাম রমেশ টুইট করে লেখেন, ‘ঝাড়খণ্ডে বিজেপির অপারেশন লোটাসের পর্দা ফাঁস হয়ে গিয়েছে হাওড়ায়। মহারাষ্ট্রে যা হয়েছিল, ঝাড়খণ্ডেও ইডিকে কাজে লাগিয়ে সেই কাজ করতে চাইছে বিজেপি।’ জানা যায়, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল বিকেলে হাওড়ার পাঁচলার রানিহাটি মোড়ে ছয় নম্বর জাতীয় সড়কে ঝাড়খণ্ডগামী একটি কালো রঙের টয়োটা গাড়ি আটকায় পুলিশ। কলকাতা থেকে গাড়িটি আসছিল। গাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বান্ডিল-বান্ডিল নোট উদ্ধার করা হয়। গাড়ির পিছনের দিকে প্রচুর ৫০০ টাকার নোটের বান্ডিল ছিল।

পুলিশ সূত্রে খবর, ঝাড়খণ্ডগামী একটি গাড়িতে যে প্রচুর টাকা নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, সে বিষয়ে আগেই খবর মিলেছিল। সেইমতো হাওড়া সিটি পুলিশ এবং হাওড়া গ্রামীণ পুলিশের আধিকারিকরা তল্লাশি চালাতে থাকেন। বিকেলের দিকে রানিহাটি মোড়ে ওই গাড়িটি ঘিরে ধরা হয়। গাড়িতে যাঁরা ছিলেন, তাঁদের নামিয়ে তল্লাশি চালানো হয় বলে জানায় পুলিশ। গাড়িতে ছিলেন জামতাড়ার বিধায়ক ইরফান আনসারি, খিজরির বিধায়ক রাজেশ কচ্ছপ এবং কোলেবিরার বিধায়ক নমন বিক্সাল। তিন বিধায়কই কংগ্রেসের। তিন কংগ্রেস বিধায়ককে আটক করা হয়েছে। জানা যায়, টাকা রাখার কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি আটক ব্যক্তিরা। ওই টাকার উৎস জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

বন্ধ করুন