বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আত্মতুষ্টি এবং নেতৃত্বাহীনতার জেরে করোনা বিভীষিকায় জর্জরিত দেশ, দাবি রঘুরাম রাজন
আরবিআই-এর প্রাক্তন প্রধান রঘুরাম রাজন (ফাইল ছবি)
আরবিআই-এর প্রাক্তন প্রধান রঘুরাম রাজন (ফাইল ছবি)

আত্মতুষ্টি এবং নেতৃত্বাহীনতার জেরে করোনা বিভীষিকায় জর্জরিত দেশ, দাবি রঘুরাম রাজন

  • আত্মতুষ্টি এবং নেতৃত্বাহীনতার জেরেই দ্বিতীয় দফায় করোনা নিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এমনই দাবি করলেন আরবিআই-এর প্রাক্তন প্রধান রঘুরাম রাজন।

আত্মতুষ্টি এবং নেতৃত্বাহীনতার জেরেই দ্বিতীয় দফায় করোনা নিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এমনই দাবি করলেন আরবিআই-এর প্রাক্তন প্রধান রঘুরাম রাজন। এদিন ব্লুমবার্গ টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে প্রাক্তন আরবিআই প্রধান বলেন, 'সবার মধ্যে একটা ধারণা তৈরি হয়েছিল যে আমরা সবথেকে বাজে সময় পার করে এসেছি। এবং ভাইরাস এর থেকে বাজে পরিস্থিতিতে আর আণাদের নিয়ে যেতে পারে না। তাই আমরা বের হয়ে গিয়েছিলাম। তবে সেই আত্মতুষ্টিটাই আমাদের আঘাত করেছে।'

এদিন রঘুরাম রাজন আরও বলেন, 'কেউ কি এটার উপর নজর দিচ্ছে যে বাকি বিশ্বে কী হচ্ছে? উদাহরণস্বরূপ ব্রাজিলেরও বোঝা উচিত ছিল যে এই ভাইরাস ফিরে আসতে পারে। এবং আরও শক্তিশালী হয়ে আঘাত আনতে পারে।' এছাড়া নেতৃত্বহীনতা এবং দূরদর্শিতার অভিব নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

এদিন রাজন বলেন, 'আমরা যদি একটু সাবধান হতাম, সতর্ক হতাম, তাহলে এই পরিস্থিতি হত না। আমাদের বুঝতে হত যে এখনও সব শেষ হয়ে যায়নি।' উল্লেখ্য, এর আগে ভারতের বহু প্রশাসনিক কর্তা এবং রাজনৈতিক নেতা বলেছিলেন যে দেশ কোভিড চলে গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে রাজন আরও বলেন, 'অনেকেই ভেবেছিলেন যে আমারা ভাইরাসকে প্রতিহত করতে পেরেছি। আমাদের হাতে সময় আছে। তাই টিকাকরণ প্রক্রিয়া ধীর গতিতে চালানো হচ্ছিল।' রাজনের দাবি, এর জন্যেই এখন টিকাকরণ নিয়ে হাহাকার দেখা দিয়েছে দেশে।

উল্লেখ্য, গত ১৩ দিন ধরে দেশে জৈনিক সংক্রমণের হার ৩ লক্ষের উপর। এদিনও দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লক্ষ ৫৭ হাজার মানুষ। করোনায় প্রাণ গিয়েছে আরও ৩ হাজার ৪৪৯ জনের। দেশে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৩৪ লক্ষ ৪৭ হাজার ১৪৪।

বন্ধ করুন