বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > লাগাতার ৩ দিন উত্থানের পরে শুক্রবার ফের কমল সোনা-রুপোর দাম
শুক্রবার ভারতীয় বাজারে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৫০,২৭০ টাকা।
শুক্রবার ভারতীয় বাজারে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৫০,২৭০ টাকা।

লাগাতার ৩ দিন উত্থানের পরে শুক্রবার ফের কমল সোনা-রুপোর দাম

  • সূচকে ০.২৪% পতনের জেরে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৫০,২৭০ টাকা।

গত তিন দিন লাভের মুখ দেখার পরে শুক্রবার ফের নিম্নমুখী হল সোনা ও রুপোর দর। এমসিএক্স সূচকে এ দিন ০.২৪% পতনের জেরে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম যাচ্ছে ৫০,২৭০ টাকা। সূচকে ০.৬% পতনের ফলে প্রতি কেজি রুপোর দাম যাচ্ছে ৬৭,৮৮২ টাকা। 

বৃহস্পতিবার ডলারের দাম পড়ার কারণে সূচকে ১.৫% উত্থানের জেরে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম বেড়েছিল ৭৫০ টাকা এবং ৩.৫% বৃদ্ধির জেরে প্রতি কেজি রুপোর দাম বেড়ে দাঁড়ায় ২,৩০০ টাকা। 

বাজার বিশ্লেষকদের মতে, আমেরিকায় ট্রাম্প জমানার অবসানে আরও উদার অর্থনৈতিক সংস্কারের আশা এবং ডলারের দাম পড়ার ফলেই সোনার দামে সাম্প্রতিক ওঠানামা দেখা দিয়েছে।

জিওজিৎ ফাইন্যান্সিয়াল জানিয়েছে, এমসিএক্স সূচকে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৯,৬২০ টাকার নীচে নামলে বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা দিতে পারে।

অন্য দিকে কোটাক সিকিওরিটিস-এর তরফে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে, ‘বেশ কয়েক দিন নিম্নমুখী বাজার থাকার পরে অর্থনৈতিক সংস্কারের সম্ভাবনায় সোনার দামে ফের উত্থান দেখাদিয়েছে। তবে ফে-এর অবস্থান সম্পর্কে পূর্বাভাস এবং মার্কিন নেতাদের এখনও পর্যন্ত অর্থনৈতিক সংস্কারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে গড়িমসির জেরে এই উত্থান স্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা কম। এর সঙ্গে রয়েছে, ইটিএফ-এ বিক্রির হারে সাম্প্রতিক খরা।’

বিশেষজ্ঞদের মতে, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা আরোপে বাধ্য হচ্ছে অধিকাংশ দেশের সরকার। তারই প্রভাবে সোনা কেনাবেচায় মন্দা দেখা দিয়েছে। 

এ দিন আন্তর্জাতিক বাজারে স্পট গোল্ড সূচকে ০.২% পতনের জেরে প্রচতি আউন্স সোনার দাম যাচ্ছে ১.৮৮১.৬৫ ডলার। যদিও চলতি সপ্তাহে এর আগে সোনার দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ২.৩ শতাংশ। পাশাপাশি, এ দিন প্রতি আউন্স রুপোর দাম কমেছে ১%।

এই পরিস্থিতিতে ইটিএফ লগ্নির হারও উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। বৃহস্পতিবার মোট মজুত সোনার পরিমাণ ২% কমে দাঁড়ায় ১,১৬৭.৮২ টন।

বন্ধ করুন