বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ক্রমেই বাড়ছে 'ব্ল্যাক ফাংগাস'-এর প্রকোপ, মিউকোরমাইকোসিস রোধে পরামর্শ কেন্দ্রের
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডঃ হর্ষ বর্ধন (ছবি সৌজন্যে এএনআই)
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডঃ হর্ষ বর্ধন (ছবি সৌজন্যে এএনআই)

ক্রমেই বাড়ছে 'ব্ল্যাক ফাংগাস'-এর প্রকোপ, মিউকোরমাইকোসিস রোধে পরামর্শ কেন্দ্রের

  • করোনা আবহে মানুষের মনে আতঙ্ক বাড়িয়েছে 'ব্ল্যাক ফাংগাস' বা মিউকোরমাইকোসিস।

করোনার আতঙ্কে ঘুম উড়েছে দেশবাসীর। এই পরিস্থিতিতে এবার মানুষের মনে আতঙ্ক বাড়িয়েছে 'ব্ল্যাক ফাংগাস' বা মিউকোরমাইকোসিস। এই ছত্রাকের বিরুদ্ধে লড়াই করার লক্ষ্যে এবার সচেতনা বাড়াতে নির্দেশিকা জারি করলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডঃ হর্ষ বর্ধন।

এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলেন, 'সচেতনতা এবং প্রাথমিক রোগ নির্ণয় ছত্রাকের সংক্রমণের বিস্তারকে নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করতে পারে।' উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যে এই ফাংগাল সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২ হাজার করোনা রোগী। বিশেষত ডায়াবেটিস আক্রান্ত করোনা রোগীদের মধ্যে এই সংক্রমণের সম্ভাবনা বেশি বলে জানা গিয়েছে।

এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মিউকোরমাইকোসিসের উপসমের বিষয়ে জানিয়ে বলেন, 'এই রোগের উপসমগুলি হল চোখ ব্যথা বা লাল হয়ে যাওয়া, জ্বর, মাথা ব্যথা, কাশি, নিঃশ্বাস নিতে অসুবিধা, রক্ত বমি।' করোনা থেকে সুস্থ হওয়া কোনও রোগীর যদি কোমর্বিডিটি থাকে, অর্থাৎ তাঁদের ডায়াবেটিস, কিডনি কিনবা হার্টের সমস্যা থাকে, ক্যান্সার প্রভৃতি সমস্যা থাকে তাঁদেরও এই ছত্রাক দ্বারা সংক্রমিত হওয়ার সম্ভবনা বেশি। মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও গুজরাতেও করোনা রোগীদের মধ্যে ব্ল্যাক ফাংগাসের খবর এসেছে।

মন্ত্রী দাবি করেন, এই রোগের থেকে বাঁচতে হলে হাইপারগ্লাইকেমিয়া নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। রক্তে সুগার লেভেল নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সঠিক ভাবে স্টেরয়েড ব্যবহার করতে হবে। অক্সিজেন থেরাপির সময় হিউমিডিফায়ারে স্টেরিল জল ব্যবহার করতে হবে। সঠিক ভাবে অ্যান্টিবায়োটিক এবং অ্যান্টি ফাংগাল ওষুধ ব্যবহার করতে হবে।

বন্ধ করুন