বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘মুখ্যমন্ত্রী হতে চাওয়া হয় ২৫০০ কোটি’, চাঞ্চল্যকর ‘অফার’ পেয়েছিলেন BJP বিধায়ক!
কর্ণাটকের বিজেপি বিধায়ক বাসনাগৌড়া ইয়াতনাল দাবি করেন, তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সি দেওয়ার বদলে ২৫০০ কোটি টাকা দাবি করা হয়েছিল (PTI)
কর্ণাটকের বিজেপি বিধায়ক বাসনাগৌড়া ইয়াতনাল দাবি করেন, তাঁকে মুখ্যমন্ত্রীর কুর্সি দেওয়ার বদলে ২৫০০ কোটি টাকা দাবি করা হয়েছিল (PTI)

‘মুখ্যমন্ত্রী হতে চাওয়া হয় ২৫০০ কোটি’, চাঞ্চল্যকর ‘অফার’ পেয়েছিলেন BJP বিধায়ক!

  • বিজেপি নেতার এহেন চাঞ্চল্যকর অভিযোগে অস্বস্তিতে পড়েছে গেরুয়া শিবির। তবে বিধায়কের এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে দলের কোনও শীর্ষ স্থানীয় নেতা এখনও মুখ খোলেননি।

কর্ণাটকের বিজেপি বিধায়ক বাসনাগৌড়া ইয়াতনাল শুক্রবার দাবি করেন যে তাঁকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার বিকল্প দেওয়া হয়েছিল। তবে তাঁকে বলা হয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রী হতে গেলে ২৫০০ কোটি টাকা দিতে হবে। ইয়াতনালের এই দাবির পর নতুন করে রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়েছে কর্ণাটকে। এই ঘটনায় কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে কংগ্রেস। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ডিকে শিবকুমার বলেছেন, বিষয়টি গুরুতর এবং এর তদন্ত হওয়া উচিত। (আরও পড়ুন: সুরাপ্রেমীদের জন্য সুখবর! জুন থেকে কমছে VAT, একধাক্কায় অনেকটাই সস্তা মদ)

বিজেপি নেতা বাসনাগৌড়া ইয়াতনাল বলেন যে রাজ্যে এমন কিছু নেতা রয়েছে যারা কর্ণাটকের শীর্ষ পদ পেতে তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ দাবি করেন। একটি দলীয় অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে ইয়াতনাল বলেন, ‘রাজনীতিতে একটা জিনিস বুঝুন, এই চোরদের বিশ্বাস করবেন না। তারা প্রস্তাব নিয়ে আসবে যে আপনাকে টিকিট দেবে। একবার আমাকে বলা হয়েছিল ২৫০০ কোটি টাকা দিতে, তাহলে আমাকে মুখ্যমন্ত্রী করা হবে।’ বিজেপি নেতা আরও বলেন, ‘আমি নিজেই ভাবছিলাম যে তাঁরা কী ভাবেন, ২৫০০ কোটি টাকার মানে কী হয়? তাঁরা এই টাকা কোথায় রাখবেন? তাই এই সংস্থাগুলি টিকিটের নামে কালোবাজারি করছে। বড় কেলেঙ্কারি হচ্ছে।’

এদিকে বিজেপি বিধায়কের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে কর্ণাটক কংগ্রেসের প্রধান ডিকে শিবকুমার এই অভিযোগের তদন্তের দাবি করেছেন। তিনি বলেন, ‘এটি একটি জাতীয় সমস্যা এবং এর তদন্ত হওয়া দরকার।’ উল্লেখ্য, সাম্প্রতিককালে কর্ণাটকে বাসবরাজ বোম্মাইয়ের মুখ্যমন্ত্রিত্বের মেয়াদকাল নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এই গুঞ্জনের মাঝেই ()তবে বিধায়কের এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে দলের কোনও শীর্ষ স্থানীয় নেতা এখনও মুখ খোলেননি।

বন্ধ করুন