বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > Sakshi Singh Dhoni: ‘করদাতা হিসেবে জানতে চাই, বিদ্যুৎ সঙ্কট কেন?’ গরমে রেগে ফায়ার ধোনি পত্নী সাক্ষী
এমএস ধোনি ও সাক্ষী ধোনি (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)
এমএস ধোনি ও সাক্ষী ধোনি (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

Sakshi Singh Dhoni: ‘করদাতা হিসেবে জানতে চাই, বিদ্যুৎ সঙ্কট কেন?’ গরমে রেগে ফায়ার ধোনি পত্নী সাক্ষী

  • Sakshi Singh Dhoni: বিদ্যুতের অভাবে চল্লিশ ডিগ্রির বেশি গরমে ফ্যান বা এসি ছাড়া থাকতে হচ্ছে আম জনতাকে৷ সাধারণ মানুষের বেহাল দশার সাক্ষী হয়ে তা মানতে পারছেন না ধোনি পত্নী৷

ঝাড়খণ্ডের বিদ্যুৎ সঙ্কট নিয়ে প্রশ্ন তুলে টুইট মহেন্দ্র সিং ধোনির স্ত্রী সাক্ষী সিংয়ের। ঝাড়খণ্ডের বিভিন্ন জায়গায় চলছে তীব্র তাপপ্রবাহ। এর মাঝে বিদ্যুৎ সঙ্কটে নাজেহাল অবস্থা রাঁচিবাসীর। আর এই নিয়ে এবার টুইট করলেন ধোনি পত্নী। টুইটে তিনি লেখেন, ‘ঝাড়খণ্ডের একজন করদাতা হিসেবে আমি জানতে চাই ঝাড়খণ্ডে এত বছর ধরে বিদ্যুৎ সঙ্কট চলছে কেন? আমরা আমাদের দিক থেকে সচেতন ভাবে শক্তি সংরক্ষণ করে চলেছি৷’

প্রসঙ্গত, আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত ঝাড়খণ্ডের গিরিডি, পূর্ব ও পশ্চিম সিংভূম, রাঁচি, বোকারো, কোদারমা, পালামৌ, গাড়ওয়া, ছাত্রায় তাপপ্রবাহ চলবে৷ এদিকে এই তাপপ্রবাহের দোসর হয়েছে বিদ্যুৎ সঙ্কট৷ দেশজুড়ে বিভিন্ন বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে কয়লার ঘাটতি দেখা দিয়েছে৷ এর জেরে বিদ্যুৎ সঙ্কটের মুখে পড়েছে ঝাড়খণ্ডও৷ আর তাতেই ‘ক্ষুব্ধ’ ভারতীয় ক্রিকেট দলের বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন অধিনায়কের স্ত্রী৷ বিদ্যুতের অভাবে চল্লিশ ডিগ্রির বেশি গরমে ফ্যান বা এসি ছাড়া থাকতে হচ্ছে আম জনতাকে৷ সাধারণ মানুষের বেহাল দশার সাক্ষী ধোনি পত্নী নিজে৷

আরও পড়ুন: জলবায়ু পরিবর্তনের ইঙ্গিত, আর কবে বৃষ্টির মুখ দেখবে কলকাতা?

এদিকে কয়লা সঙ্কট নিয়ে ইতিমধ্যে সোমবার কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর কে সিং বৈঠক করেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের সঙ্গে৷ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে দ্রুত যথেষ্ট পরিমাণে কয়লা সরবরাহ নিয়ে দুই মন্ত্রীর মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷ এই পরিস্থিতিতে বিদ্যুৎ মন্ত্রী কেন্দ্র এবং রাজ্য দু'তরফকেই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার বার্তা দিয়েছেন৷

 

বন্ধ করুন