বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দিল্লি-মুম্বইতে হামলার ছক,জার্মানি থেকে গ্রেফতার ‘শিখস ফর জাস্টিস’ সদস্য মুলতানি
শিখস ফর জাস্টিসের বিশিষ্ট সদস্য জাসবিন্দর সিং মুলতানি (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস)

দিল্লি-মুম্বইতে হামলার ছক,জার্মানি থেকে গ্রেফতার ‘শিখস ফর জাস্টিস’ সদস্য মুলতানি

  • জার্মানিতে বসবাসের আগে পঞ্জাবের হোশিয়ারপুরের বাসিন্দা ছিলেন ৪৫ বছর বয়সী মুলতানি।

জার্মানিতে গ্রেফতার হল নিষিদ্ধ সংগঠন শিখস ফর জাস্টিসের বিশিষ্ট সদস্য। গত সপ্তাহে লুধিয়ানার একটি আদালতে বিস্ফোরণে জড়িত থাকার জন্য এবং দিল্লি ও মুম্বইয়ে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করার ষড়যন্ত্রের জন্য নিষিদ্ধ সংগঠন শিখস ফর জাস্টিসের বিশিষ্ট সদস্য জাসবিন্দর সিং মুলতানিকে গ্রেফতার করল জার্মানির পুলিশ। জার্মানিতে বসবাসের আগে পঞ্জাবের হোশিয়ারপুরের বাসিন্দা ছিলেন ৪৫ বছর বয়সী মুলতানি। সে ‘শিখস ফর জাস্টিসে’র প্রতিষ্ঠাতা গুরপতবন্ত সিং পান্নুর ঘনিষ্ঠ সহযোগী এবং বিচ্ছিন্নতাবাদী কার্যকলাপে জড়িত।

বন এবং নয়াদিল্লিতে অবস্থিত কূটনীতিকদের মতে, নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার জার্মান কর্তৃপক্ষকে পাকিস্তানের সাথে যুক্ত খালিস্তানপন্থী উগ্রপন্থীকে গ্রেফতার করার জন্য অনুরোধ করেছিল। তারপরই মুলতানিকে মধ্য জার্মানির এরফুর্ট থেকে ফেডারেল পুলিশ গ্রেফতার করেছিল। সীমান্তের ওপার থেকে পঞ্জাবে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাচারের সঙ্গে মুলতানি জড়িত বলে অভিযোগ।

প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার বেলা আনুমানিক সাড়ে বারোটার সময় লুধিয়ানা জেলা আদালত ভবনের দ্বিতীয় তলের একটি শৌচাগারে বিস্ফোরণ হয়৷ এর তীব্রতা এতটাই জোরদার ছিল যে শৌচাগারের দেওয়াল ক্ষতিগ্রস্ত হয়৷ কাচ ভেঙে ছড়িয়ে পড়ে আদালত চত্বরেও৷ ঘটনার নেপথ্যে গগনদীপ ছিল বলে জানায় পুলিশ। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালে এই গগনদীপকে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছিল। মাদক পাচার কাণ্ডে জড়িত ছিল গগনদীপ। লুধিয়ানা আদালতের ওই ঘটনায় গগনদীপ নিহত হয়। তাছাড়া বিস্ফোরণে জখম হন আরও ছয়জন।

এদিকে লুধিয়ানা আদালতে বিস্ফোরণের ঘটনায় ড্রাগ মাফিয়াদের হাত থাকতে পারে বলে জানিয়েছিলেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চন্নি৷ তিনি জঙ্গি যোগের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছিলেন। তবে তদন্ত শুরু হতেই পঞ্জাব ডিজিপির গলায় শোনা যায় অন্য সুর। তবে সূত্র মারফত হিন্দুস্তান টাইমস জানতে পারে, এই বিস্ফোরণের সঙ্গে যোগ রয়েছে পাকিস্তানে বসবাসকারী পঞ্জাবি গ্যাংস্টার হরভিন্দর সিং ওরফে রিন্ডা এবং উগ্রপন্থী সংগঠন ‘শিখস ফর জাস্টিস’। উল্লেখ্য, এর আগে কৃষক আন্দোলনের সময় শিখস ফর জাস্টিস বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভারত সরকার বিরোধী মিছিল করেছিল।

বন্ধ করুন